ভারতের সবথেকে ধীরগতির ট্রেন ৪৬ কিমি যায় পাঁচ ঘণ্টায়। কিন্তু ধীর গতির এই ট্রেনে চড়লে আপনার যে বিরক্ত লাগবে না তা নিশ্চিত। কারণ, ট্রেনের বাইরের নৈসর্গিক দৃশ্য দেখে আপনি অনেক জায়গাতেই ট্রেন থেকে নেমে যেতে বাধ্য হবেন।

নীলগিরি মাউন্টেন রেলওয়ে। দক্ষিণ ভারতের মেট্টুপালাইয়াম থেকে উটি পর্যন্ত নীলগিরি মাউন্টেন রেলওয়েই ভারতে সব থেকে ধীর গতিতে ট্রেন চলাচল করে। এটাই এশিয়ার সব থেকে খাড়াই রেলপথ। পাহাড়ি এই রেলপথে যে যাত্রীরা ট্রেন চলে, সেটির গড় স্পিড ঘণ্টায় ৯ কিলোমিটার। নৈসর্গিক এই রেলপথে অনেক জায়গাতেই যাত্রীরা ট্রেন থেকে নেমে দিব্যি ছবি-সেলফি তুলে ফের ট্রেনে উঠে যেতে পারেন।

ট্রেন থেকে নেমে এভাবেই ছবি তোলেন যাত্রীরা। এই রেলপথের মোট দূরত্ব ৪৬.২০ কিমি। কিন্তু এইটুকু পথ অতিক্রম করতে সময় লাগে চার ঘণ্টা পঞ্চাশ মিনিট। রেলের বেঁধে দেওয়া গতিসীমা অনুযায়ী, এই রুটে সর্বোচ্চ ১৯ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে ট্রেন চলার কথা। তাও মাত্র তিন কিলোমিটার এই গতিতে ট্রেন চলার ছাড়পত্র দেওয়া হয়। রেলপথটিতে ১৬টি সুড়ঙ্গ এবং ২৫০টি ব্রিজ রয়েছে।

পাহাড়ের কোল বেয়ে এগিয়ে চলে এভাবেই এগিয়ে যায় ট্রেন। ধীর গতির এই ট্রেনে চড়লে আপনার যে বিরক্ত লাগবে না তা নিশ্চিত করে বলাই যায়। কারণ, ট্রেনের বাইরের নৈসর্গিক দৃশ্য দেখে আপনি অনেক জায়গাতেই ট্রেন থেকে নেমে যেতে বাধ্য হবেন। পাঁচ ঘণ্টা সময় কখন কেটে যাবে, তা হয়ত বুঝতেও পারবেন না।