আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মালয়েশিয়ার একটি সমুদ্র সৈকতে এক বাংলাদেশির পোড়া লাশ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। স্থানীয় সময় রবিবার রাতে লোরোং পান্তাই কেলানাং সৈকতে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যার পর প্রমাণ নিশ্চিহ্ন করতে লাশে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

নিহত বাংলাদেশির নাম সাইয়্যাদ আলী। তার পাসপোর্ট নম্বর বিসি০২১৪৫৩৪।

দেশটির কুয়ালা লাঙ্গাত জেলা পুলিশ প্রধান জাইলান তাসির জানান, রবিবার রাত পৌনের বারোটার দিকে সৈকতে পড়ে থাকা অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করা হয়।

তাসির জানান, লাশ উদ্ধারের পূর্বে সৈকতের ওই স্থানে আগুন জ্বলছিল বলে জানিয়েছেন দুই প্রত্যক্ষদর্শী।

তিনি বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। লাশের শরীরের প্রায় শতভাগ পুড়ে গেছে। লাশের পিঠে ও মাথায় আঘাতের চিহ্ন হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে’।

পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘হত্যার প্রমাণ নিশ্চিহ্ন করতে অন্য কোথাও খুন করে  সৈকতে এনে শরীরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হতে পারে’।

পুলিশ জানিয়েছে, লাশের প্রত্যেকটি আঙুলে আংটি রয়েছে, পকেটে মানিব্যাগ পাওয়া গেছে। শার্টের পকেটে ২০ ও ১০ রিঙ্গিতের দুটি নোট পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থলে ক্যাস্ট্রল ইঞ্জিন তেলের একটি বোতলও উদ্ধার করা হয়েছে।

হত্যা মামলা হিসেবে দেশটির দণ্ডবিধির ৩০২ ধারা মোতাবেক ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।