ভারতের মালদহর কালিয়াচকের আকাশে উড়বে জোড়া ড্রোন। এই জোড়া ড্রোনের খবর পাওয়া মাত্রই জেলা জুড়ে উত্তেজনা তুঙ্গে। তবে কোনও কোন সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ নয়, এই ড্রোনের সাহায্যে, আফিম চাষ রুখতে, আকাশ পথে নজর দারি চালাবে জেলা প্রশাসন।

বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া মালদার কালিয়াচকের ৩ টি ব্লক পূর্বভারতের একমাত্র এলাকা যা বে-আইনি আফিম চাষের এলাকা হিসবে চিহ্নিত।

কালিয়াচকের মাটি ধান বা অন্য যে কোনও চাষের জন্য উপযুক্ত হওয়া সত্ত্বেও এখানের ৭০ শতাংশ জমি এখন আফিম গাছে ভর্তি। পুলিশ,আফগারি দফতরের কর্মীরা চেষ্টা করেও বন্ধ করতে পারেনি আফিম চাষ। মালদা জেলা শাসক শরদ কুমার দ্বিবেদি জানান, মালদার মাটিতে পোস্ত চাষ বন্ধ করতে সরকার যে কোনও পথে হাঁটতে প্রস্তুত । যেমন করেই হোক আফিম বা পোস্ত চাষ মালদা থেকে নির্মূল করা হবে।

পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষ জানান , প্রকাশ্যে চাষ প্রায় বন্ধ। তবে অনেক জমিতেই এখন পোস্তর চাষ হচ্ছে, যেখানে পুলিশি নজর পৌঁছচ্ছে না৷ সেই কারনেই আকাশ পথে ওড়ানো হবে জোড়া ড্রোন। এই ড্রোনের GPRS ক্যামেরায় তোলা ছবি সরাসরি ধরা পড়বে জেলা পুলিশের কন্ট্রোল রুমে। এখনও পর্যন্ত ১হাজারেরও বেশি জমি-মালিকের নামে কালিয়াচক থানায় অভিযোগ জমা পড়েছে । গ্রেফতার হয়েছে অনেক জমি-মালিক। মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং এই বিষয়ে তদারকি করছেন। ইতি মধ্যে এয়ারপোর্ট দফতর ও প্রশাসনিক পর্যায়ে দুটি ড্রোন ওড়ানোর ছাড়পত্র পাওয়া গিয়েছে। যা উড়ে বেড়াবে কালিয়াচক ও বৈষ্ণব নগরের আকাশে।