banglanewspaper

আজ ৯ ডিসেম্বর বেগম রোকেয়া দিবস। দিনটি উপলক্ষে রাজধানীতে বিভিন্ন সংগঠন নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনটি উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন।
বেগম রোকেয়ার ১৩৬তম জন্ম ও ৮৪তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ।
বেগম রোকেয়া ১৮৮০ সালের ৯ ডিসেম্বর রংপুর জেলার পায়রাবন্দ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। রক্ষণশীল মুসলিম পরিবারে জন্ম নিয়ে তিনি নারী জাগরণের অগ্রদূতের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন।

তিনি উনবিংশ শতাব্দীর একজন খ্যাতিমান বাঙালি সাহিত্যিক ও সমাজ সংস্কারক। ১৯৩২ সালের ৯ ডিসেম্বর তিনি কলকাতায় মৃত্যুবরণ করেন।

রোকেয়া দিবস উপলক্ষে বাংলা একাডেমি আয়োজন করেছে একক বক্তৃতা অনুষ্ঠানের। 
আজ বিকেল চারটায় একাডেমির শামসুর রাহমান কক্ষে ‘বেগম রোকেয়া: প্রথম নারীবাদী’ বিষয়ে বক্তৃতা দেবেন বাংলা একাডেমির ফেলো অধ্যাপক গোলাম মুরশিদ। বিপ্লবী নারী সংহতি সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া বেদিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করবে। পরে রোকেয়া হলের গেটে একটি সমাবেশেরও আয়োজন করা হয়েছে।
বাণীতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, নারী শিক্ষা প্রসারে বেগম রোকেয়া যে ঐতিহাসিক অবদান রেখে গেছেন, তা চিরস্মরণীয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর বাণীতে বলেন, বেগম রোকেয়া তাঁর ক্ষুরধার লেখনীর মাধ্যমে নারীর প্রতি সমাজের বৈষম্যমূলক আচরণের মূলে আঘাত হানেন।

রংপুরে কর্মসূচি: আজ থেকে বেগম রোকেয়ার জন্মস্থান রংপুরের মিঠাপুকুরের পায়রাবন্দে তিন দিনব্যাপী রোকেয়া মেলার আয়োজন করেছে রংপুর জেলা প্রশাসন। মেলায় হস্তশিল্প প্রদর্শনীর পাশাপাশি আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকছে। রংপুর শহরের নাগরিক সংগঠন রোকেয়া ফোরাম আজ বিকেলে রংপুর টাউন হলে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।
এ ছাড়া রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেও রোকেয়া দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে।
 

ট্যাগ: