banglanewspaper

হ্যা আমি একজন নারী হয়েই এটা স্বীকার করছি, এক নারীর হরেক রুপের কারণেই তারা দুর্বোধ্য। তাই এক নারী অন্য নারীর চারিত্রিক দুর্নাম দিতেও দ্বিধা বোধ করেনা।


আর সেটা যদি হয় কোন পুরুষকে জড়িয়ে রাখার ব্যাপার তাহলে তো কথাই নেই। প্রথমে চাইবে অন্য যে নারীর সাথে তার পছন্দের পুরুষের ভাল সম্পর্ক, তাকে ভুল বোঝাতে। তারপর পুরুষটির চরিত্রের দোষ দিয়ে ভাল সম্পর্কটা নষ্ট করাতে, তাতে যদি হিংসুটে নারীর কাজ সম্পন্ন না হয়, তখন বাইরের লোক দিয়ে ফোন করিয়ে আরো মেয়েদের নিয়ে নানা রকম নোংরা কথা ছাড়াবে।


আর যখন দেখবে তার কথায় অন্যসব মেয়েদের সেই পুরুষের সাথে ভাল সম্পর্কগুলো ভেঙ্গে পুরুষটি নিজেই সবাইকে সরিয়ে দিচ্ছে ঠিক তখন আবার সেই প্রথম নারী সেই পুরুষের সাথে মিলে যাবার জন্য নানা ফন্দিফিকির শুরু করবে, এ এক জটিল চরিত্রিক রুপ।


কেন রে বাবা যাকে তুই সবার কাছে খারাপ বানানোর চেষ্টা করছিলি তাকেই কেন আবার তোর লাগবে ! তাতে তো সবার আগে তোর চরিত্রই নোংরা প্রকাশ করছিস, পুরুষের কি এসে যায় সত্যিকারের নোংরা তো তুই নিজেই। পুরুষ সহজ সরল ভাবেই বদনাম এড়িয়ে চলতে যাচ্ছে তবে তোর এত জ্বালা ই বা কেন আবার পরক্ষনেই এত প্রেমই বা উতলে উঠছে কেন!


পুনশ্চঃ এটি আমার দেখা এবং জানা সত্যি ঘটনা যা নিয়ে আমি চরম মাত্রায় বিরক্ত এবং আমি এসব একেবারেই মেনে নেইনা। কারণ আমি স্পষ্টভাষী মানুষ কোন কথা লুকিয়ে চুপিয়ে বলিনা, যার যা দোষ স্পষ্ট ভাবেই বলে দেই তাতে কে আমায় কি ভাবলো বা মনে করলো আই ডোন্ট কেয়ার। আর আমি বিশ্বাস করি, "যে সবার বন্ধু সে আসলে কারোই সত্যিকারের ভাল বন্ধু নয়, " কারণ একজন মানুষের পক্ষে সবার সাথে একই ভাবে বন্ধুত্ব মেন্টেইন করা কোন ভাবেই সম্ভব নয় তাই আমি আমার স্বভাব চেইঞ্জ বা সবার কাছে ভাল ভান করার প্রশ্নই আসেনা। শুধু নারী হয়ে অধিকাংশ নারীদের এমন নোংরামীর বিরুদ্ধে সোচ্চার হচ্ছি। আর আমার পক্ষ থেকে আহ্বান করছি এখনো শুধ্রে যাও কারণ তুমি ও সন্তানের মা, আজ তুমি যেমন অন্য মেয়েকে নিয়ে বদনাম করছো তোমার বাগে না পাওয়া পুরুষকে জড়িয়ে কাল তোমার সন্তানকে নিয়েও অন্যরা সেই একই বদনাম ছড়াতে পারে। কারণ পাপ বাপকেও ছাড়েনা ঘুড়ে ফিরে সেটা নিজের ঘাড়েই আসবে ই আসবে এক যুগ পরে হলেও।

 

লেখিকা: সাংবাদিক মাকসুদা সুলতানা ঐক্য।

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। বাংলাদেশ নিউজ আওয়ার-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)

ট্যাগ: