পরিবারের সব সদস্যই কর্মক্ষম হবে এমনটা ভাবাটা অযৌক্তিক । কেননা স্রষ্টা কর্তৃক সৃষ্ট বা প্রকৃতিগতভাবে সব সদস্য সমান শারীরিক এবং মানসিক শক্তি নিয়ে জন্মান না । তখন পরিবারের বাকি সদস্যদের বিশেষ করে পরিবার প্রধানের দায়িত্ব আরো বেড়ে যায় ।

বাংলাদেশ নামক পরিবারেও উপরোক্ত বিষয়টির নজির প্রতীয়মান । তবে এই পরিবারের একটা প্রবল শক্তিমত্তার জায়গা আছে । আর তা হল এই পরিবারের বর্তমান প্রধান দেশরত্ন শেখ হাসিনা । যিনি বিশ্ব শক্তির সকল উঁকি-ঝুকি এবং প্রকাশ্য চোখ রাঙ্গানিকে উপেক্ষা করে এই পরিবারটিকে নিয়ে চলেছেন ক্রমেই এক অনন্য উচ্চতায় । অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক,সামাজিক সর্ব ক্ষেত্রেই আয়তনে ক্ষুদ্র অথচ সাফল্যের দিকে অনন্য এক বিস্ময় এখন এই দেশ । নিজে অর্থনীতির ছাত্র না হলেও অর্থনীতিবিদদের সারল্যপূর্ণ পরিসংখ্যানটা বোঝার কিছুটা চেষ্টা আছে । সেই চেষ্টা ধরে বললে , অর্থনীতির ভাষায় কোন দেশের মোট জনসংখ্যার ১৫-১৬ শতাংশ মানুষ যদি দারিদ্রসীমার নিচে থাকে , তাহলে সে দেশকে আর দরিদ্র দেশ বলা যায় না । কেননা দেশের মোট জনসংখ্যার মাঝে ১৫-১৬ শতাংশ মানুষ শিশু ও প্রতিবন্ধী হয়ে থাকে ।

যারা উপার্জনে অক্ষম । বর্তমান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যেসব উদ্যোগ নিচ্ছে তাতে ২০১৮-১৯ সালে এই মুস্টিমেয় জনতা ব্যতীত প্রায় সকলেই উপার্জনে সক্ষম হবেন । অর্থাৎ অর্থনীতিবিদদের সূত্র মতে আমাদের দেশকে আর কেউ দরিদ্র বলে চোখ রাঙ্গাতে পারবে না । অন্যদিকে প্রকৃতিগতভাবে যারা সক্ষম তাদের নিয়েই যে শুধু আমদের পরিবার প্রধান ভাবছেন বিষয়টি কিন্তু তাও না । কেননা তাঁরই কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বেশ শক্ত-পোক্তভাবেই প্রতিবন্ধীদের জন্যে কাজ করে যাচ্ছেন । স্বীকৃতিস্বরূপ ভূষিত হয়েছেন বিশ্ব কর্তৃক নানান উল্লেখ্য পুরষ্কারে এবং ভালোবাসায় । ভিন্নভাবে বললে পরিবার প্রধান একদিকে কর্মক্ষম মানুষের জন্যে নিরন্তর কাঁটা বিছানো পথে হেঁটে চলেছেন । অন্যদিকে যারা অক্ষম তাদের জন্যে নিয়োজিত করেছেন তাঁরই কন্যাকে ।

পরিবার নিয়ে অন্তরে ভাবনার দহন না থাকলে কে পারে এতটা উজাড় করে সবটা দিতে ? উন্নয়নের অব্যাহত ধারা পর্যবেক্ষণ স্বরূপ অহংবোধ থেকে নয় আত্মবিশ্বাসের জায়গা থেকে বলছি , জন্যনেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দূর্বার বাঙ্গালী যদি যূথবদ্ধ থাকে তবে আগামীতে বিশ্ব নিয়ন্ত্রকের আসনে আমরাই আসীন হবে । এগিয়ে চলছেন নেত্রী, এগিয়ে চলবে বাংলাদেশ।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

 

লেখকঃ হায়দার মোহাম্মাদ জিতু, সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

 

 

 

 

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। বাংলাদেশ নিউজ আওয়ার-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)