banglanewspaper

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল হোসেন বলেছেন, সীমান্ত হত্যা বন্ধে আমরা কাজ করছি। তাই খুব শীঘ্রই সীমান্ত হত্যা শূণ্যের কোটায় আনার ব্যাপারে আমি আশাবাদি।’

সোমবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে তিনি লালমনিরহাটের পাটগ্রামের আলোচিত দহগ্রাম-আঙ্গোপোতা পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমি দায়িত্ব নেয়ার পর নিয়মিত সীমান্ত পরিস্থিত পর্যবেক্ষন করছি। এটা অব্যাহত থাকবে।’

বিজিবি মহাপরিচালক এর আগে সড়ক পথে রংপুর থেকে পাটগ্রামে এসে পানবাড়ি বিওপি ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। পরে সেখান থেকে তিনি দহগ্রামের তিন বিঘা করিডোরে গেলে ভারতের জলপাইগুড়ি বিএসএফের সেক্টর কমান্ডার বিএস পাটিয়াল ও রানীনগর ২২ বিএসএফ ব্যাটালিয়ন কমান্ডার কর্ণেল অজয় লুথরী তাকে ফুল দিয়ে অভ্যার্থনা জানান।

সেখানে বিএসএফের একটি চৌকুস দল বিজিবি মহাপরিচালককে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এরপর বিজিবি মহাপরিচালক দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা বিওপি ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে তিন বিঘা করিডোরের আম্রকুঞ্জে এসে বিএসএফ আয়োজিত এক চা চক্রে মিলিত হন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজিবির নর্থ জোনের (উত্তর-পশ্চিম) অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার শাহরিয়াদ আহম্মেদ, রংপুর বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোয়াজ্জেম হোসেন, লালমনিরহাট বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল বজলুর রহমান হায়াতী।