banglanewspaper

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার সড়ক ও জনপদ বিভাগের অব্যবস্থাপনায় সরকারের সকল উন্নয়ন ভেস্তেগেছে। দীর্ঘদিনের খানাখন্দেভরা কুষ্টিয়া জেলার সড়ক ও জনপদ বিভাগের প্রায় ১৪৪ কিঃমিঃ রাস্তাটি ব্যবহারের একেবারেই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

গত একমাসের কুষ্টিয়া সড়ক বিভাগের রাস্তাগুলিতে প্রায় ২৭জন নিহত ও চিরতরেরমত পঙ্গুত্ব বরণ করেছে ২৬জন, আহত হয়েছে আড়াই শতাধিক। কুষ্টিয়ার ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্টমিডিয়া এবং সোশ্যাল মিডিয়া একাধিকবার লেখালেখি করেও ঘুমভাঙ্গেনি সড়ক ও জনপদ বিভাগের কর্তা ব্যক্তিদের। ঘাম ঝড়িয়েছেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ জহির রায়হানও।

বিশেষ করে কুষ্টিয়ার রাজনৈতিক নেতাদের একটু স্বদিচ্ছা পেলেই কুষ্টিয়া জেলার সড়ক ও জনপদ বিভাগের রাস্তাগুলো মেরামত করা সহজ হত বলে জনিয়েছেন সড়ক ও জনপদ বিভাগের জনৈক কর্মকর্তা। কুষ্টিয়া জেলার উত্তর প্রান্তেরদ্বার লালনশাহ সেতুর পর থেকে ঝিনাইদহ সীমান্ত পর্যন্ত রাস্তাটি এতোটাই নাজুক দুর্ঘটনা যেন নিত্যনৈবত্তিক ব্যাপার।

কুষ্টিয়া রাজবাড়ী ঢাকা সড়কটিও নির্মানের পর অদ্যবদি পর্যন্ত পর্যাপ্ত সংস্কার ও রক্ষনাবেক্ষন না করায় রাস্তাটি একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে। সরকারের উন্নয়নের দাবীদারের অংশ পদ্মাসেতু নির্মানের পাথর, রড, সিমেন্ট এই রাস্তাটি দিয়ে যাতায়াত করলেও কুষ্টিয়া রাজবাড়ীর এই রাস্তাটি মেরামত না করায় প্রায় সময়ই নির্মাণ সামগ্রী বোঝাই ট্রাকগুলো রাস্তা আটকে বিকল হয়ে পড়ে থাকে।

ফলত আগন্ত  গাড়ী সমূহ উক্ত রাস্তায় বড় আকারের যানজট তৈরী হয়। সময়মত মাল পৌছাতে না পারায় সরকারের উন্নয়ন কাজের প্রাইস ব্যহত হয়। উন্নয়নের অন্তরায়ে কুষ্টিয়ার সড়ক বিভাগের এহন দায়িত্বহীনতা ও অব্যবস্থাপনায় সরকারের সকল উন্নয়ন ভেস্তে যাচ্ছে।

ট্যাগ: