banglanewspaper

গাইবান্ধা-১ আসনের সাংসদ মনজুরুল ইসলাম লিটন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের শনাক্ত করে আইনের মুখোমুখি করা হবে। জড়িত ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি চৌকস দল কাজও শুরু করেছে।

আজ বুধবার দুপুরে রংপুরের জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৫তম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। 

তিনি বলেন, অতীতে যত হত্যাকাণ্ড হয়েছে, সব কটির সঙ্গে জড়িত খুনিদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। লিটনের হত্যাকারীরা যে-ই হোক না কেন, তাদের খুঁজে বের করা হবে। কেউ রেহাই পাবে না।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুন্সির সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন সংসদীয় কমিটির সদস্য ইকবালুর রহীম এমপিসহ বেশ কয়েকজন এমপি, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আবুল হোসেন, পুলিশের আইজিপি একেএম শহিদুল হক, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুন্সি এমপি বলেছেন, ‘সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে জরুরি ভিত্তিতে কাউন্টার টেরোরিস্ট টিম গঠন করার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এ বাহিনী দেশের যেকোনও প্রান্তেই সন্ত্রাস বা জঙ্গিবিরোধী কর্মকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেবে। এ জন্য তাদের সর্বাধুনিক অস্ত্রশস্ত্রসহ রসদ সরবরাহ করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, জঙ্গিদের দমনে শুধুমাত্র আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর নির্ভরশীল হলে চলবে না। এ জন্য জনগনকে সচেতন করে তাদের মোটিভেট করার প্রয়োজন আছে। আজকের বৈঠকে সেই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। অচিরেই রাজশাহীতে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

ট্যাগ: