মনির হোসেন জীবন, গাজীপুর: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এ্যাডভোকেট আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন বর্তমান সরকার একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। যে প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে কাউকে খোলা আকাশের নিচে থাকতে হবেনা। দেশের সকলের জন্য বাসস্থান সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রকাশ্যে এ ঘোষনা দিয়েছেন। 

মন্ত্রী বুধবার সন্ধ্যায় গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা পরিষদ চত্ত¡রে ৩ দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যদানকালে এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী এসময় আরো বলেন, বর্তমান সরকার জনগন বান্ধব সরকার। এ সরকারের আমলে জনগনের স্বার্থে  ব্যপাক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। সরকারের উদ্যোগে বাংলাদেশে এই প্রথম প্রায় ৩৭ কোটি বই কোমলমতি শিশুদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে যা পৃথিবীর কোন রাষ্টই আজ পর্যন্ত করতে পারেনি।

বিদ্যুতের উন্নয়ন নিয়ে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ কেবল মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। এ সরকারের আমলে জনগনের দৌড়ঘোরায় বিদ্যুৎ পৌছে দেওয়া হবে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সে লক্ষ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র তৈরি করা হচ্ছে। আগামী ৫০ বছর পর বাংলাদেশের জনগনের জন্য যতটুকু পরিমাণ বিদ্যুৎ লাগবে তা দেশের প্রক্রিয়াধীন বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের সমাপ্তি শেষে আগামী ৫ থেকে ১০ বছরের মধ্যে তা বাস্তবায়িত হবে। 

তথ্য ও প্রযুক্তির উন্নয়ন নিয়ে মন্ত্রী বলেন, এখন ঘরে বসেই কৃষকরা সকল ধরণের সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা ঘরে বসেই পরীক্ষার ফলাফল জানতে পারছে। ঘরে বসেই পাসপোর্টসহ গুরুত্বপূর্ণ কাজ অনায়াসেই করা যাচ্ছে তথ্য ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে। 

কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সানোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম খান এর সঞ্চালনায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কালিয়াকৈর উপজেলা পরিষদ এর চেয়ারম্যান রেজাউল করীম রাসেল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার, সহকারি পুলিশ সুপার (গাজীপুর) আব্দুস সবুর, কালিয়াকৈর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মোতালেব মিয়া, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা কাজী রফিকুজ্জামানসহ উপজেলার প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ। মন্ত্রী পরে সন্ধ্যা ৬টার দিকে কালিয়াকৈর থানা চত্বরে গরীব দুস্থদের মাঝে শীত বস্ত্র ও শাড়ী বিতরণ করেন।