বিনোদন ডেস্ক: তাঁর অতীত কিন্তু অন্য গল্প শোনায়। তবে তাঁর এখনকার পারফরম্যান্স নজর কাড়ে সবার। গত ১৫ আগস্ট তিহার জেলের এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অভিনয় করে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন আক্রম। হয়তো তিনি পেশাদার অভিনেতা নন, কিন্তু মঞ্চে তাঁর অভিনয় মুগ্ধ করে সবাইকে।

মাদকের মারণ গ্রাস নিয়ে সচেতনতামূলক নাটক মঞ্চস্থ হয়েছিল ভারতের তিহার জেলে। এই নাটকে অভিনয় করেন আক্রম। মজার ব্যাপার হল, এই তিহার জেলেই আক্রম নিজে ২১ বার বন্দি ছিলেন। তাও গত ২৩ বছরে। তাঁর ঝুলিতে আছে বহু অপরাধ করার রেকর্ড। কিন্তু জীবন বদলেছে তাঁর। এখন তিনি একটি থিয়েটার গ্রুপে অভিনয়ের শিক্ষকতা করেন।

তিনি নতুন প্রজন্মকে শেখাচ্ছেন থিয়েটারের খুঁটিনাটি। তার এই গ্রুপ যত আয় করে, বা তাঁর নিজের যা উপার্জন, তার একটা বড় অংশ এখন থিয়েটারের জন্য সঞ্চয় করেন আক্রম। জীবনের মোড় এভাবে ঘুরিয়ে ফেলার জন্য জেল কর্তৃপক্ষ তাকে সম্মানিত করেছে।  

দিল্লি পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল (কারা) সুধীর যাদব মনে করেন, দেশজুড়ে বিভিন্ন সংশোধনাগারের প্রায় ১০০ জন বন্দি এই থিয়েটারের মাধ্যমে নতুন জীবন খুঁজে পাচ্ছেন। কয়েদিদের জন্য এক নতুন জীবন উপহার দিয়েছেন আক্রম।  

তিহার জেলের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও। 
সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন