banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদের পর ইতিবাচক ধারায় রয়েছে শেয়ারবাজার। বৃহস্পতিবারও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে।

ফলে দিন শেষে ডিএসইর বাজারমূলধন বেড়েছে আরও দুই হাজার কোটি টাকা। এ ছাড়া এদিন ডিএসইতে এক হাজার ১৪৪ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। যদিও এই লেনদেন আগের দিনের চেয়ে কিছুটা কম।

এর পরও লেনদেন হাজার কোটি টাকার ছাড়ানোর মানে হল বাজারে তারল্য প্রবাহ বেড়েছে। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে- ডিএসইতে বৃহস্পতিবার ৩২৯টি কো¤পানির ৩৫ কোটি ৮২ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

যার মোট মূল্য এক হাজার ১৪৪ কোটি ২৭ লাখ টাকা। ডিএসইর ব্রডসূচক আগের দিনের চেয়ে ৪৫ দশমিক ৮১ পয়েন্ট বেড়ে ছয় হাজার ১১৪ দশমিক ৯৯ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে।

ডিএসই-৩০ মূল্যসূচক ১৮ দশমিক ০২ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ১৭৮ দশমিক ৫০ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১২ দশমিক ২৯ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৩৪৭ দশমিক ৮৬ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে।

এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের, কমেছে ১৩৩টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫০টি কোম্পানির শেয়ারের। ডিএসইর বাজারমূলধন আগের দিনের চেয়ে বেড়ে চার লাখ সাত হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে।

শীর্ষ দশ কোম্পানি : ডিএসইতে এদিন যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ার বেশি লেনদেন হয়েছে সেগুলো হল- স্কয়ার ফার্মা, প্রিমিয়ার ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, লংকা বাংলা ফাইন্যান্স, গ্রামীণফোন, সিএনএ টেক্সটাইল, এক্সিম ব্যাংক, ফরচুন সুজ, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ। ডিএসইতে বৃহস্পতিবার যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ার বেশি লেনদেন হয়েছে সেগুলো হল- মিথুন নিটিং, মুন্নু স্টাফলার, আনলিমা ইয়ার্ন, লিব্রা ইনফিউশন, এপেক্স স্পিনিং, প্রিমিয়ার ব্যাংক, তাক্কাফুল ইন্স্যুরেন্স, মেঘনা সিমেন্ট, রূপালি লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক।

ট্যাগ: