banglanewspaper

প্রায় প্রত্যেক বাড়িতেই নাস্তা-কিংবা খাবারে ডিম খাওয়া হয়ে থাকে। ডিম এমন একটা খাবার, যা প্রায় প্রত্যেকেরই পছন্দের। সেদ্ধ হোক কিংবা ভাজা অথবা পোচ, সবরকমভাবেই ডিম আমাদের বেশ পছন্দের। শরীরের বিভিন্ন ঘাটতি পূরণ করে ডিম। চিকিত্সকরাও তাই পুষ্টির জন্য ডিম খাওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু এবার এই ডিমই চিন্তার কারণ হয়ে উঠছে।

ডিম দূষণের কারণে এখন ডিম খাওয়া বেশ চিন্তার বিষয় হয়ে উঠেছে। দূষিত ডিম খেলে শরীর খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু কীভাবে হচ্ছে এই ডিম দূষণ? পোলট্রি ফার্মে অনভিজ্ঞ কর্মীদের সঠিক জ্ঞান না থাকার কারণে এবং পোলট্রির মধ্যে যথেষ্ট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা না থাকার কারণেই প্রধাণত ডিম দূষণ হচ্ছে। এই ডিম দূষণের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে ক্রেতা-বিক্রেতা সবাই।

কীভাবে প্রতিরোধ করা যাবে এই ডিম দূষণ?
১) ডিম নিয়ে যাঁরা সবসময় নাড়াচাড়া করেন, তাঁরা কাঁচা ডিমে হাত দেওয়ার আগে ভালো করে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন।

২) সদ্য পাড়া ডিম আর খাবার জন্য তৈরি ডিগুলিকে একসঙ্গে রাখবেন না।

৩) কাঁচা ডিম খাবেন না।

৪) সঠিক প্রশিক্ষণ না থাকা কর্মীকে পোলট্রির দায়িত্বে রাখবেন না।

ট্যাগ: