কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের সাথে সন্ত্রাসীদের বন্দুক যুদ্ধে মিরাজ হাসান টেনি (২৬) নামের এক সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় একটি বিদেশী পিস্তল, ১টা ম্যাগাজিন, ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। এ সময় পুলিশের ৩ সদস্য আহত হন।

মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার পিপুলবাড়ীয়া বালিয়াডাঙ্গা মাঠে এ বন্ধুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। 

নিহত টেনি উপজেলার ছাতারপাড়া এলাকার আলম মন্ডলের ছেলে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ দারা খাঁন জানান, ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি বালিয়াডাঙ্গা মাঠে সন্ত্রাসীরা গোপন বৈঠক করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালালে পুলিশকে লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীরা গুলি করতে থাকে। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি করলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে সেখানে তল্লাশী চালিয়ে ডজন খানেক মামলার আসামী সন্ত্রাস মিরাজ হোসেন টেনিক গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। 

এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, ১টি ম্যাগাজিন  ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। সংঘর্ষকালে পুলিশের ৩ সদস্য আহত হয়। 

টেনির বিরুদ্ধে দৌলতপুর, ভেড়ামাড়াসহ বিভিন্ন থানায় ডজন খানেক মামলা আছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।