banglanewspaper

অনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেছেন, 'পুলিশ প্রশাসনে ছাত্রলীগের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে অনেক কম বরং বিএনপি ও শিবির কর্মীদের অনেকেই প্রশাসনে কর্মকর্তা পদে আছেন। তাছাড়া উচ্চ পর্যায়ের কিছু অফিসার আছে যারা স্বাধীন ও সার্বভৌমত্ব বাংলাদেশ চিন্তাধারায় নেই এবং বিশ্বাস করে না, পারলে বিরোধিতা করে এমন লোকও সরকারে আছে।'

রোববার রাত ১০টায় বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলে এক টকশোয় তিনি এ কথা বলেন। খালিদ মহিউদ্দিনের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে একমাত্র অতিথি ছিলেন এইচ টি ইমাম।

তিনি আরও বলেন, ‘২০০৯ সালে যখন শেখ হাসিনা সরকার গঠন করেছিলেন তখন কয়েক বছর বিএনপির থেকে বলা হতো প্রশাসন দলীয়করণ হচ্ছে। কিন্তু বিএনপি এখন এমন কথা একদম বলে না। এর কারণ কী? এখন প্রশাসনে পুলিশের বিভিন্ন জায়গায় পোস্টিং বদলি হচ্ছে সেগুলো বিএনপির মনমতোই হচ্ছে। ’

এদিকে বিএনপির মনমতো পক্ষ লোক নিয়োগ হচ্ছে বা এটি আওয়ামীকরণের কোনো প্রক্রিয়া হচ্ছে কিনা— এমন এক প্রশ্নের জবাবে এইচ টি ইমাম বলেন, ‘এটি কখনো হয় না। যে যেই মতাদর্শ নিয়ে চলাচল করে এবং বিশ্বাস করে সেখান থেকে সহজে কেউ বের হয়ে আসতে পারে না।

তবে আমি একটা ব্যাপার বিশ্বাস করি এবং প্রধানমন্ত্রীও বলেন ছাত্রজীবনে যে যাই করেছে সেটা এক ধরনের কথা। কিন্তু যারা রাজনীতি করবে তাদের সেই মতাদর্শে থাকতে হবে। তবে যখন সরকারি কর্মকর্তা হয়ে যাবে তখন তারা প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারী।

ট্যাগ: