নিজস্ব প্রতিনিধি: আজ বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) জামায়াতের আমির মকবুল আহমাদসহ কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয় দলটি। তবে রাস্তায় ছিল ভিন্ন চিত্র। অন্য দিনের মতোই স্বাভাবিক রয়েছে রাজধানী। 

সকাল থেকে রাজধানীর অফিসগামী মানুষ ছুটছে নিজ গন্তব্যে। বাস, সিএসজি, লেগুনায় ছিল মানুষের উপচে ভরা ভীড়। রাজধানীর ব্যাংকপাড়া খ্যাত মতিঝিলে হরতালের কোনো চিত্র চোখে পড়েনি। এছাড়া কল্যাণপুর, শ্যামলী, ফার্মগেট, কারওয়ানবাজার, শাহবাগ, পল্টন, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় জামায়াতের নেতাকর্মীদের উপস্থিতি বা পিকেটিং করতে দেখা যায়নি। 

এদিকে রাজধানীর শপিং মল, অলিগলির দোকান পাট খোলা দেখা গেছে। তবে রাজধানীতে জামাত-শিবিরের নেতাকর্মীরা যাতে কোন প্রকার সহিংতা করতে পারে সেজন্য পুলিশের বাড়তি উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। আজ ভোর থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশের বাড়তি নিরাপত্তা বলয় গড়তে দেখা গেছে।

উল্লেখ্য গত ১০ অক্টেবার রাজধানীর উওরা থেকে জামায়াতে ইসলামীর আমির মকবুল আহমাদ ও নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার ও সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমানসহ নয় জনকে আটক করে ডিবি পুলিশ। গোপন বৈঠকের সময় তাদের গ্রেফতার হয়। ৯ জনের মধ্যে প্রত্যেকের বিরুদ্ধেই একাধিক মামলা এবং অনেকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ছিল। 

এদিকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দলটির নেতারা জানায়, বুধবার বিক্ষোভ মিছিল, বৃহস্পতিবার হরতাল ও শুক্রবার দোয়া মাহফিলের ঘোষণা দেয়। ঘোষণা দিয়েই দলটি আটকে রয়েছে।