banglanewspaper

স্ত্রীর দুরারোগ্য ক্যান্সারের চিকিৎসার খরচ যোগাতে নিজের বনানীর বাড়িটি বিক্রি করে দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। এমনকি সরকারি সুবিধার সুযোগও তিনি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

সৈয়দ আশরাফের স্ত্রীর মৃত্যুর পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই খবরটির সূত্র ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা প্রসংসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন রাজনীতিতে সজ্জন এবং পরিচ্ছন্ন মানুষ হিসাবে পরিচিত সৈয়দ আশরাফকে।

গত ৯ অক্টোবর অসুস্থ স্ত্রীর পাশে থাকতে লন্ডন যাওয়ার আগে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম দেখা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে। সে সময় সৈয়দ আশরাফকে জানানো হয়েছিলো মন্ত্রী হিসাবে তার স্ত্রীর চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকার বহন করবে। স্বল্পভাষী সৈয়দ আশরাফ শুধু জানিয়েছিলেন, “বনানীর বাড়িটা বিক্রি করে দিয়েছি, সেটা দিয়েই হয়ে যাবে।”

সৈয়দ আশরাফের স্ত্রী সোমবার মারা যাওয়ার পর এই কথাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হয়ে প্রশংসিত হচ্ছে বিভিন্ন মহলে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, 'আশরাফ ভাই বাংলাদেশের রাজনীতিতে একজন সজ্জন ব্যাক্তি। তাঁর সততার একটা উৎকৃষ্ট উদাহরণ দিয়ে গেছেন। এমন একটা উদার মানুষ, ভাল মানুষ খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন ও দূর্লভ। এটি সকলের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।'