banglanewspaper

ঢাবি প্রতিনিধি: বিংশ শতাব্দীর জনপ্রিয় কথা সাহিত্যিক ও নির্মাতা হুমায়ুন আহমেদের ৬৯তম জন্মদিন ‍উপলক্ষে তাঁর ভক্তদের সংগঠন “হিমু পরিবহণ” কর্তৃক ‘হুমায়ূন জন্মোৎসব ২০১৭’ নামে বিশেষ অনুষ্ঠান সূচীর মধ্য দিয়ে  জন্মদিন পালন করা হয়েছে।

সোমবার (১৩ নভেম্বর) সকাল ৬ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল থেকে একদল হিমু রুপারা পায়ে হেঁটে নুহাশপল্লী উদ্দেশ্যে যাত্রা দিয়ে শুরু করে টি এস সি মিলনায়তনে এক আলোচনার মধ্য দিয়ে তাঁর জন্মদিন পালন করা হয়।

জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভায় ‍উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, হুমায়ূন পত্নী মেহের আফরোজ শাওন, উন্মাদ সম্পাদক ও কার্টুনিষ্ট আহসান হাবিব, শিল্পী সেলিম চৌধুরী, প্রকাশক মাজাহারুল ইসলাম, ফরিদ আহমেদ ও অভিনেতা প্রাণ রায়সহ একদল হিমু ভক্ত।

অনুষ্ঠানে বিশেষ ক্রোড়পত্র “ধ্রুব তারা” এর মোড়ক উন্মোচন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও হুমায়ুন আহমেদের বইয়ের প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এছাড়াও হুমায়ূন আহমেদকে স্মরণ করে দেশের প্রায় ৫০টি জেলায় হিমু পরিবহণের সদস্যরা মাসব্যাপি বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সারাদেশের হিমু পরিবহণের শাখাগুলোতে দোয়া মাহফিল, এতিমদের খাবার খাওয়ানো, রচনা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, হুমায়ুন আহমেদের নাটক, সিনেমা প্রদর্শনী, আলোচনা সভা, সেমিনার ও ক্যান্সার সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণসহ নানা আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয় অনুষ্ঠানে।

আলোচনা অনুষ্ঠানে হুমায়ুন আহমেদের পত্নী মেহের আফরোজ শাওন বলেন, হুমায়ূন আহমেদকে শুধু হিমু নামের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলে চলবে না, তাঁর সব চরিত্রকে সামনে নিয়ে আসতে হবে।  এসময় তিনি হুমায়ূন ভক্তদের সংগঠন ‘হিমু পরিবহণ’ এর নাম ‘ হুমায়ূন আহমেদ পরিবহণ’ করার প্রস্তাব করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, প্রকৃতি থেকে উদ্ভত লেখা মানুষের মন ছুঁয়ে যায়, হুমায়ুন আহমেদ সেই প্রকৃতি থেকেই লেখা সংগ্রহ করে মানুষের মন ছুঁয়ে গেছেন। আজ ‘হিমু পরিবহণ’ যে কাজ হাতে নিয়েছে সেই কাজের মাধ্যমে হুমাযুন আহমেদ হাজারো মানুষের মনে চিরকাল বেঁচে থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ট্যাগ: