banglanewspaper

শাহেদুল ইসলাম, ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ছাত্রলীগ ও ছাত্রদল নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে তিন ছাত্রদল কর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

শনিবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের থানা গেটে এ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসানকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সকাল ৭টার দিকে ক্যাম্পাস পার্শ্ববর্তী শেখপাড়া বাজার থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সভাপতি ওমর ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি মিছিল বের করা হয়। ছাত্রদল ক্যাম্পাসে মিছিল করবে- এমন সংবাদে সকাল সাড়ে ৬টা থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমের নেতৃত্বে ক্যাম্পাস গেটে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগ।

ছাত্রদলের মিছিলটি শেখপাড়া বাজার থেকে শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের থানা গেটে পোঁছালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রড, হকিস্টিক ও লাঠি নিয়ে তাদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পরে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ধাওয়ায় ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা পিছু হটে ছত্রভঙ্গ হয়ে পার্শ্ববর্তী আনন্দ নগর গ্রামের দিকে পালিয়ে যায়। এ সময় ছাত্রদলের কামরুল, মাহবুব এবং উল্লাস নামে তিনকর্মী আহত হয়।

পরে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এ সময় ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর হোসেন আলো, আবু হেনা মোস্তফা কামাল, আব্দুল ওদুদ, শাহরয়িার মিশন, ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত, শাহজালাল সোহাগ, কামরুল হাসান অনিক, বিপুল খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ইবি ছাত্রদলের সভাপতি ওমর ফারুক বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে ছাত্রলীগের ক্যাডার বাহিনী হামলা করেছে। দীর্ঘদিন থেকে আমাদের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে দেয়া হয় না। এখন আমরা সহনশীলতা প্রদর্শন করলেও এ ধৈর্যে্যর বাঁধ ভেঙে গেলে যে পরিবেশ সৃষ্টি হবে তার দায়ভার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকেই নিতে হবে। অচিরেই ছাত্র জনতাকে সঙ্গে নিয়ে আমরা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলব।

ইবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম বলেন, ছাত্রদলকে প্রতিহত করতে ছাত্রলীগ সব সময় মাঠে ছিল, আছে এবং থাকবে। তাদেরকে ক্যাম্পাসে কোনো বিশৃঙ্খলার সুযোগ দেয়া হবে না। ক্যাম্পাসে কোনো প্রকার নাশকাতার চেষ্টা করলে যেখানে ছাত্রদল সেখানে ধোলাই হবে।

ট্যাগ: