banglanewspaper

শিশুদের অধিক পরিমানে বিস্কুট ও মিষ্টি খাওলে তা থেকে ক্যান্সারের মতো ভয়াবহ রোগ হতে হবে। স্কটল্যান্ডে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষকরা তেমনটাই জানিয়েছেন।  

১৮টি দেশে ৫৬টি সমীক্ষায় এই তথ্য পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, অনেক ব্যস্ত মা–বাবারাই তাঁদের ছোট ছোট ছেলেমেয়েকে দাদু–ঠাকুমার কাছে রেখে সকালে কাজে বেরিয়ে পড়েন। তাঁদের বাসায় ফিরতে রাত হয়ে যায়। এই সময়টুকুতে শিশুরা নানা দুষ্টুমি করে। দাদু–ঠাকুমার বয়স হয়েছে। নাতি–নাতনিকে তাই বায়নাক্কা থেকে সরিয়ে আনতে মাঝে মাঝে বিস্কুট বা লজেন্স দেন। মোটেই ঠিক করেন না। খুব বেশি বিস্কুট বা লজেন্স খেলে হয়ত একটু মোটা হয়। দাদু–ঠাকুমারা ভাবেন, নাতি–নাতনির স্বাস্থ্য ভালই হয়েছে। কিন্তু এতে বিপদ আছে। 

ওই গবেষকরা বলেন, বেশি বিস্কুট–লজেন্স খেলে ক্যান্সারের প্রবণতা বাড়তে পারে। অতিরিক্ত মোটা হয়ে যাওয়া ভাল স্বাস্থ্যের প্রমাণ মোটেই নয়। বিস্কুট বা মিষ্টি তৈরিতে এমন কিছু থাকে, যা পরিমাণের বাইরে খেলে শারীরিক উপসর্গ দেখা দেয়। ক্যান্সারও হতে পারে। নাতি–নাতনিরা কান্নাকাটি, বায়না, জেদ করলেই হাতের কাছে যা খাবার পাচ্ছেন ধরিয়ে দিচ্ছেন। তা সব সময় ঠিক নয়। সূত্র : আজকাল  

ট্যাগ: