banglanewspaper

ডেস্ক রিপোর্ট: স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগে মেয়ের জামাইকে রাস্তার মধ্যে ফেলে পিটিয়েছেন এক শ্বাশুড়ি। শনিবার সকালে পশ্চিমবঙ্গের রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতাল চত্বরে ওই ব্যক্তিকে গণপিটুনি দেয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রায়গঞ্জ থানার বাহিন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মহারাজপুরের বাসিন্দা সুকুমার মণ্ডল চার বছর মাড়াইকুড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের নেতাজি মোড় এলাকার বাসিন্দা শিপ্রা (মমতা) শর্মাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই শিপ্রাকে তার শ্বাশুড়ি ও স্বামী অত্যাচার করত বলে অভিযোগ।

শনিবার সকালে শিপ্রার গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে স্বামী ও শ্বাশুড়ি। এমন খবর পেয়ে শিপ্রার বাড়ির লোকেরা দ্রুত গিয়ে তাকে রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। এই সময় সুকুমারও তাদের সঙ্গে ছিলেন। সুকুমারের শরীরও কিছুটা ঝলসে যায় ওই ঘটনায়।

তবে শিপ্রাকে হাসপাতালে ভর্তির পরই সুকুমারকে আক্রমাণ করে। শিপ্রার মা ও আত্মীয়রা হাসপাতাল চত্বরেই সুকুমারকে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে রায়গঞ্জ থানা পুলিশ। পরে সুকুমারকে আহত অবস্থায় আটক করে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ট্যাগ: Banglanewspaper রাস্তা জামাই পেটালো শাশুড়ি