banglanewspaper

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ২০১৮ সালের মার্চে জনগনের জন্য সিনেমা হল চালুর ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। চলমান রক্ষণশীল রাজতন্ত্রের ৩৫ বছরে এমন পদক্ষেপ এই প্রথম।

দেশটিতে ১৯৮০ সাল থেকে নিষিদ্ধ করা হয় সিনেমা হল। কট্টরপন্থী ধর্মগুরুদের চাপেই সে সময় এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয় সৌদি কর্তৃপক্ষ। সেদেশের রক্ষণশীল ধর্মীয় অনুশাসনে জনসাধারণকে বিনোদন এবং নারী-পুরুষের একত্রে চলাচল করাকে অনুৎসাহিত করা হয়।

বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমে যাওয়ার পর সিনেমা তাদের অর্থনীতিকে কিছুটা হলেও সচল করবে বলে মনে করছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

দেশটির সংস্কৃতি ও তথ্য বিষয়ক মন্ত্রী আওয়াদ বিন সালেহ আলাওয়াদ জানান, 'সিনেমা হল চালু হলে তা অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং বৈচিত্র্য আনয়নের ক্ষেত্রে একটি অনুঘটক হিসেবে কাজ করবে। এছাড়া এর মাধ্যমে বিশ্ব সংস্কৃতির সঙ্গে নাগরিকদের পরিচয় এবং নতুন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে।'

আন্তর্জাতিক সিনেমা কর্তৃপক্ষ সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, ইতোমধ্যে আঞ্চলিক সিনেমা চেইন অপারেটরগুলো গবেষণা শুরু করে দিয়েছে সৌদির সিনেমা শিল্পের বিষয়ে।'

আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই মন্ত্রী আলাওয়াদ এর নেতৃত্বাধীন একটি কমিশন লাইসেন্স এবং নীতিমালা সংক্রান্ত বিষয়ে বিস্তারিত জানাবে বলে জানিয়েছে সৌদি সরকার।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে ৩২ বছর বয়সী ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বে রক্ষণশীলতা থেকে কিছুটা বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে সৌদি আরব। ফলে শিথিল হচ্ছে অনেক কড়াকড়ি। এতদিন ধরে আবদ্ধ থাকা নারীদের আগামী বছর থেকে দেয়া হচ্ছে গাড়ি চালানোর অনুমতি।

ট্যাগ: Banglanewspaper সিনেমা সৌদি আরব