banglanewspaper

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, খুব শিগগিরই গ্রামীণ ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন হবে। শিডিউল বানানো হয়ে গেছে।

ইউনূস ও তার সমর্থকদের করা বিভিন্ন কেসের (মামলা) কারণে নির্বাচন করতে দেরি হয়ে গেল।

আজ রবিবার সচিবালয়ে গ্রামীণ ব্যাংকের ২০১৬ সালের ক্যালেন্ডার বছরের লভ্যাংশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তার দপ্তরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, গ্রামীণ ব্যাংকের ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা গ্রাহকরা এখন গ্রুপভিত্তিক ঋণ নিয়ে অনেক প্রফিট করছেন। এটি বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তনের বড় নির্দেশক। যেখানে অধিকাংশ মানুষ গরিব ছিল, এখন মাত্র ২৫ শতাংশ। ব্যাপকভাবে বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তন হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, গ্রামীণ ব্যাংক আগের চেয়ে ভালো করছে। বাংলাদেশের সাধারণ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ব্যাংকটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে চালের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় মানুষের অনেক অসুবিধা হয়েছে।

আমরা চেয়েছিলাম দামটা কিছু বাড়ুক। কারণ কৃষকের ধান বা চাল বিক্রির দাম (আগে) অনেক কম ছিল। দাম বাড়ায় সেদিক থেকে (কৃষকদের) ভালোই হয়েছে।

গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রতন কুমার নাগ ২০১৬ সালের লভ্যাংশের ৬ কোটি ১৭ লাখ ৪০ হাজার টাকার ডামি চেক অর্থমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। এ সময় ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক বাবুল সাহা ও উপমহাব্যবস্থাপক মোস্তফা কামাল উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ: Banglanewspaper অর্থমন্ত্রী গ্রামীণ ব্যাংক আবুল মাল