banglanewspaper

বিশেষজ্ঞদের মতে, সুস্থ থাকতে প্রতিদিন অন্তত ৮ গ্লাস পরিমানে পানি পান করা উচিত। পানি শরীরের তাপমাত্রা ধরে রাখতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে হজমেও সহায়তা করে। তবে যেনতেন ভাবে পানি করা ঠিক ঠিক নয়।আয়ুর্বেদে পানি খাওয়ার ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম আছে যা আপনার শরীর সুস্থ রাখতে সহায়তা করবে। 

এক ঢোঁকে অনেক পরিমানে পানি পান করা ঠিক নয়। ধীরে ধীরে চুমুক দিয়ে পানি পান করাটাই সঠিক পদ্ধতি।ঢক ঢক করে পানি খেলে অ্যাসিডিটি বেড়ে যেতে পারে।একারণে একটু একটু করে খাবার খাওয়ার মতো পানি পান করুন। 

পানি পিপাসা পেলে শরীর নানাভাবে সংকেত দেয়। ঠোঁট, জিহ্বা শুকিয়ে যায়।এরকম হলে অবশ্যই পানি পান করতে হবে। 

ওজন কমাতে পানি পান দারুনভাবে সাহায্য করে। পানি পান করার সময় একটা জায়গায় বসে পড়ুন। তারপর মুখের ভেতরে একটু একটু পানি দিয়ে পান করুন।মনে রাখবেন, এক ঢোঁকে নয়,বরং চুমুক দিয়ে একটু একটু করে পানি পান করলেই আপনার হজমশক্তি বাড়বে। 

দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পানি পান করা ঠিক নয়।কারণ তা শরীরের জলীয় ভারসাম্যকে নষ্ট করে। এতে আর্থারাইটিসের সমস্যাও হতে পারে। 

হালকা গরম পানি পানি করা শরীরের জন্য বেশ উপকারী।এটি শরীরের কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে।অন্যদিকে বরফ মেশানো ঠাণ্ডা পানি শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

সকালে ওঠে খালি পেটে পানি খেলে শরীরের টক্সিন বাইরে চলে যাবে।সেই সঙ্গে পরিস্কার থাকবে কিডনিও। একবারে বেশি পানি না খেয়ে প্রথমে এক গ্লাস পানি পানি করুন। কিছুক্ষন পর আবার এক গ্লাস পানি পান করুন।এটি আপনার শরীর সুস্থ রাখতে সহায়তা করবে । সূত্র : জি নিউজ 

ট্যাগ: Banglanewspaper পানি পিপাসা