banglanewspaper

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি: নেত্রকোণার রনি নামে এক ভুয়া সেনা অফিসারকে গ্রেফতার করেছে কেন্দুয়া থানা পুলিশ। ওই ভুয়া সেনা অফিসারের স্ত্রীর অভিযোগ পেয়ে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে রোববার রাতে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার আটাশিয়া বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়া ভুয়া সেনা অফিসার লিটন ওরফে রনি মিয়া ওরফে গনি মিয়া নেত্রকোণা জেলার বারহাট্রা উপজেলার মধুপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হেকিমের ছেলে।

কেন্দুয়া থানা সূত্রে জানা গেছে, রনি নিজেকে ভুয়া সেনাবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রায় ৬ মাস পূর্বে কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নের হরিনগর গ্রামে হাশেমের কলেজ পড়ুয়া কন্যা তাসলিমা আক্তারকে বিয়ে করে। এরপর তার স্ত্রীর খালাতো ভাই একই উপজেলার হরিপুর গ্রামের আলমগীরকে সেনাবাহিনীতে চাকুরী দেয়ার কথা বলে ২ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। চাকুরী দিতে না পারায় আলমগীর টাকা ফেরত দেয়ার জন্য চাপ দিলে তাদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

এদিকে রনি তার স্ত্রীর কাছে ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে। রনির প্রতারনার ফাঁদে পড়েছে জানতে পেরে টাকা দিতে অস্বীকার করলে সম্প্রতি রনি তার স্ত্রীকে মারপিট করে পালিয়ে যায়। পরে  প্রতারক রনির স্ত্রী তাসলিমা বিষয়টি জেলা পুলিশ সুপারকে অবহিত করেন। জেলা

পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরীর নির্দেশনা পেয়ে কেন্দুয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সোহান সরকার, কেন্দুয়া থানা অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম ও এসআই নুরুল আমীন তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন।

প্রতারক স্বামীর বিরুদ্ধে কেন্দুয়া থানায় মামলা দায়ের করেছে তাসলিমা। কেন্দুয়া থানা পুলিশ গতকাল সোমবার ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে আদালতে রনিকে সোপর্দ করেছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নুরুল আমীন জানান, লিটন নিজেকে ওয়ারেন্ট অফিসার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় বিয়ে ও চাকুরী দেয়ার কথা বলে প্রতারণা করে আসছিল। সে সেনাবাহিনীতে চাকুরী করে না। প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেওয়াই তার কাজ। গত এক বছর আগে একই অভিযোগে জেলার পূর্বধলা থানায় কর্মরত থাকাকালে তাকে গ্রেফতার করেছিলেন তিনি।

এছাড়া ২০১১ সালে নেত্রকোণা সদর থানায় একই অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিল। বর্তমানে তার বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে বলে জানায় নুরুল আমীন।

কেন্দুয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, লিটন বিভিন্ন জায়গায় নিজেকে সেনা অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রতারনা করে আসছিল। প্রতারণাই তার পেশা। ১০ দিনে রিমান্ড আবেদন করে তাকে আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper কেন্দুয়া সেনাবাহিনী গ্রেফতার