banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজধানীর মিরপুরে পূর্বশত্রুতার জের ধরে মো. হাসান (১৯) নামে এক কাপড় দোকানীকে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর আহত হাসান ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

তার দুই পায়ে মোট ৪২টি সেলাই ও বুধবার পর্যন্ত ১৫ ব্যাগ রক্ত লেগেছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা। দারুস সালাম থানায় অভিযোগ করেছেন হাসানের বাবা আব্দুল আজিজ।

গত রোববার থার্টি ফার্স্ট নাইটে মিরপুর-১ নম্বরের লালকুঠি এলাকার ২য় কলোনীর পুলিশ ফাড়িঁ সংলগ্ন বর্ধনবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মিরপুর হক প্লাজায় আদিপাট নামে একটি কাপড়ের দোকান কর্মচারী হাসান পরিবারের সঙ্গে লালকুঠি ৩য় কলোনীর ৩৯৫/৩ নাম্বার বাসায় থাকেন।

হাসান জানান, থার্টিফার্ষ্ট নাইটে ৮জন বন্ধুসহ বর্ধনবাড়ি এলাকায় খাবার খান। খাওয়া শেষে হাত ধোয়ার জন্য পাশের মসজিদের টিউবওয়েলে গেলে রাব্বি (২৬), অতুল (২৫), মুন্না (২৩), রাজীব (২০), সোলায়মান (২৪) ও সাহাবুদ্দিন নামে স্থানীয় ৬ সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর চড়াও হয়। সন্ত্রাসীরা তাকে তুলে নেয়ার চেষ্টা করলে তার বন্ধুরা বাধা দেয়।

এতে ক্ষুব্ধ হয়ে সন্ত্রাসীরা পেছন থেকে তার দুই পায়ের রানে কোপ দেয়। তিনি ঢামেক’র ১০২ নাম্বার ওয়ার্ডের ১৮ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন। রাব্বি ও সোলায়মান শীর্ষ সন্ত্রাসী কিলার কাদেরের লোক বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

দারুস সালাম থানার ওসি সেলিমুজ্জামান জানান, আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper মিরপুর কাপড় দোকানী কুপিয়ে জখম