banglanewspaper

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর মনোহরদীতে মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অবৈধভাবে প্রতিষ্ঠাতা ভোটার করা এবং সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ার পর বিধি মোতাবেক প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভোট না নিয়ে লটারী দেয়ায় কয়েকদিন ধরে স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

অভিযোগে জানা যায়, কোচেরচর ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা মো. হাফিজ উদ্দিন প্রধানের মৃত্যুর পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পর্ষদ গঠন বিধিমালা উপেক্ষা করে মাদরাসা সুপার মো. আসাদুজ্জামান কামাল ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোসা. রোখসানা আক্তার যোগসাজসে অবৈধভাবে মো. শামসুল ইসলাম মুকুলকে প্রতিষ্ঠাতা ভোটার করেন।

এ ছাড়া গত ২ জানুয়ারী অত্র মাদরাসার সভাপতি পদে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মিয়া হোসেন মোল্লা ও আতাউর রহমান মুকুল নামের দু’জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোসা. রোখসানা আক্তার। ভোট গ্রহণ শেষে প্রাপ্ত ফলাফলে দু’জন প্রার্থীই সমান সংখ্যক ভোট পান।

এ ক্ষেত্রে পদাধিকার বলে প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভোট দেয়ার সুযোগ থাকলেও প্রিজাইটিং কর্মকর্তা তার ভোট না নিয়ে লটারী দেন। লটারীর প্রক্রিয়া প্রত্যাক্ষান করে প্রতিদ্বদ্ধি প্রার্থী মো. মিয়া হোসেন মোল্লা মাদরাসা থেকে বের হয়ে আসেন। পরবর্তীতে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা অপর প্রতিদ্বদ্ধি প্রার্থী মো. আতাউর রহমান মুকুলকে বিজয়ী ঘোষনা করেন।

মাদরাসার সুপার মাওলানা আসাদুজ্জামান কামাল প্রতিষ্ঠাতা ভোটার করার বিষয়টি সঠিক হয়নি বলে স্বীকার করলেও সভাপতি নির্বাচনের বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোসা. রোখসানা আক্তারের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

ট্যাগ: Banglanewspaper মনোহরদী মাদরাসা সভাপতি নির্বাচন অভিযোগ