banglanewspaper

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ধারাবাহিক সরকারের চতুর্থ বর্ষপূর্তি আজ। ২০১৪ সালের এ দিন দশম সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয় দলটি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচনে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন বয়কট করে বিএনপি-জামায়াত জোট।

নির্বাচন বয়কট করে তা প্রতিহতের লক্ষ্যে আন্দোলন শুরু করে বিরোধী দল। আওয়ামী লীগ এই দিনটিকে গণতন্ত্রের বিজয় দিবস হিসেবে পালন করে। ২০১৪ সালের পর থেকে প্রতিবছরের মতো এবারও সারা দেশে উৎসব করবে আওয়ামী লীগ। রাজধানীর দুটি স্থানে আওয়ামী লীগের সমাবেশ হবে আজ।

আওয়ামী লীগের নেতারা জানিয়েছেন, দিবসটি উপলক্ষে দলের সব জেলা, মহানগর, উপজেলা ও থানা পর্যায়ে র‌্যালি ও সমাবেশ করবে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানীর বনানী পূজা মাঠে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ এবং ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ প্রাঙ্গণে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিজয় র‌্যালি ও সমাবেশ হবে।

এ ছাড়াও আওয়ামী লীগের সব জেলা, মহানগর, উপজেলা ও থানাগুলোয় ৫ জানুয়ারির অনুরূপ কর্মসূচি পালন করা হবে। দেশব্যাপী এই কর্মসূচিতেও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা অংশগ্রহণ করবেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এক বিবৃতিতে বলেন, ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি যথাযথভাবে পালনের জন্য দেশের সব জেলা, মহানগর, উপজেলা ও থানা আওয়ামী লীগসহ সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। একই সঙ্গে দেশের সর্বস্তরের জনগণকে দিনটি উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপনের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, গণতন্ত্রের বিজয় দিবসের কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পরদিন শনিবার রাজধানীর শিল্পকলায় বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাসের খন্ডচিত্র প্রকাশ করবে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা শেল। এতে অগ্নিসন্ত্রাসে হতাহতদের পরিবারের সদস্যরা অংশ নেবেন বলেও জানান।

ট্যাগ: Banglanewspaper রাজধানী আ.লীগ সমাবেশ