banglanewspaper

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:  কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার সাঁওতা মাধ্যমিক  বিদ্যালয়ে বিনা মূল্যের পাঠ্যবই বিতরণকালে টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মোশারফ আলী নামের এক অভিভাবক বলেন, তাঁর এক ছেলে সাঁওতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। ছেলের জন্য  বই নিতে তাঁকে ৫২০ টাকা  দিতে হয়েছে।
মোশারফ আলীর মতো অনেক অভিভাবক টাকা দিয়ে বিনা মূল্যের বই সংগ্রহ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নগর সাঁওতা গ্রামের বাসিন্দা হাবিবুর রহমান বলেন, তাঁর এক ছেলে ও মেয়ে সাঁওতা মাধ্যমিক  বিদ্যালয়ের সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণীর  ছাত্র ও ছাত্রী।  তাঁর ছেলে ও মেয়ে বিদ্যালয় থেকে নতুন বই আনতে গেলে তাকে দেওয়া হয়নি। পরে ১০০০ টাকা পরিশোধ করে ছেলে ওমেয়ের জন্য নতুন বই সংগ্রহ করতে হয়েছে।

ঢেকিপাড়া সাঁওতা গ্রামের এক বৃদ্ধা  বলেন, তাঁর নাতী বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। বই নিতে গেলে স্যাররা বলে বই নিতে ৫০০টাকা করে দেওয়া লাগবে।
শিক্ষার্থী ও অভিভাবকের অভিযোগ, শিক্ষকেরা নতুন বই দেওয়ার  অজুহাতে এ টাকা আদায় করছেন।

সাঁওতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক  সিদ্দিক রহমান বলেন, বইয়ের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো টাকা নেওয়া হয়নি। সেশন ফি, কোচিং, পরীক্ষার ফি, বিদ্যুৎ বিল বাবদ ৫০০ টাকা নেওয়া হয়েছে। কোনো স্লিপ দেওয়া হয়নি টাকা নেওয়ার সময়, আর এই বিষয়টি ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি চাঁপড়া ইউনিয়নের চেয়্যারমানের মনির হাসান রেন্টুর সাথে আলোচনা করেই করা হয়েছে।

ইউপি চেয়্যারমান রেন্টু বলেন, সেশন ফি বাবদ টাকা নেওয়া হয়েছে, নতুন বই দেওয়া বাবদ টাকা নেওয়া হয়নি, অভিভাবকের অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, আমি জানি না কিছুই বলে মুঠোফোন রেখে দেয়।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

ট্যাগ: Banglanewspaper কুষ্টিয়া বিনা মূল্যে বই শিক্ষার্থী