banglanewspaper

ক্রীড়া ডেস্ক : দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে ভালো বোলিং করেও দিন শেষে ব্যর্থ হয় ভারতীয় দল। প্রথম দিনে পিছিয়ে গিয়েও দিনের শেষে ঘুরে দাঁড়ায় প্রোটিয়ারা। দ্বিতীয় দিনেও সেই ধারা অব্যাহত রেখেছে স্বাগতিকরা।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৪৮ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান তুলেছে বিরাট কোহলির দল।

দিনের খেলা ১১ ওভার বাকি থাকতে ব্যাট করতে নামে ভারত। পঞ্চম ওভারে ফিল্যান্ডারের বলে এলগারের হাতে ক্যাচ দেন ওপেনার মুরালি বিজয় (১)। এক ওভার বাদে স্টেইনকে পুল করতে যেয়ে আকাশে উঠিয়ে দেন শেখর ধাওয়ান (১৬)। পিচে দাঁড়িয়ে স্টেইন নিজেই ক্যাচ নেন।

অফস্টাম্প ঘেঁষা শর্টবাউন্সারে ব্যাট ‘দেব কি দেব না’ করতে করতে দিয়ে ফেলেন নববিবাহিত কোহলি। আর তাতেই ৫ রানের মাথায় ধরা পড়েন উইকেটরক্ষকের হাতে। ১৮ বল স্থায়ী হয় তার ইনিংস।

কোনো মতে প্রথম সেশন পার করলেও দিনের দ্বিতীয় সেশনের শুরুতেই প্যাভিলিয়নে ফিরে গেছেন ভারতের রোহিত শর্মা। পেসার কাগিসো রাবাদার বলে এলিবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন তিনি। এছাড়া রবিচন্দ্রন অশ্বিন করেছেন ১২ রান।

এর আগে স্বাগতিক সাউথ আফ্রিকা টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। পাঁচ পেসার নিয়ে খেলতে নামা ভারত প্রথম ওভারেই সাফল্য পায়। ভুবনেশ্বর কুমারের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন এলগার (০)। তৃতীয় ওভারে মার্করামকে (৫) এলবিডব্লিউ বানান ওই ভুবনেশ্বর। পঞ্চম ওভারে আবার তার আঘাত। এবার ফিরতে হয় অভিজ্ঞ আমলাকে (৩)।

দ্রুত তিন উইকেট হারানোর পর ভিলিয়ার্স এবং ডু প্লেসিস হাল ধরেন। দুজনে ১১৪ রানের জুটি গড়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে চেষ্টা করেন। ৩৩তম ওভারের শেষ বলে এই জুটি ভাঙেন জসপ্রিত বুমরাহ। ভিলিয়ার্সকে ব্যক্তিগত ৬৫ রানে বোল্ড করেন। ৮৪ বলে ১১টি চারে এই রান করেন তিনি। কোনো ছয়ের মার নেই। প্লেসিস ফেরেন ৩৬তম ওভারে। হার্দিকের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। ১০৪ বলে ১২টি চারে ৬২ করে যান। তার ইনিংসেও কোনো ছয়ের মার নেই।

এরপর জেঁকে বসার চেষ্টা করেন ডি-কক। প্রথম তিন উইকেট শিকার করা ভুবনেশ্বর সেটা হতে দেননি। অর্ধশতক থেকে সাত দূরে থাকতে তাকে বিদায় করেন। ৪০ বলে সাতটি চারের সাহায্যে এই রান করেন তিনি। মোহাম্মদ সামির বলে বোল্ড হওয়ার আগে ফিল্যান্ডার করে যান ২৩। কেশব মহারাজকে (৩৫) রানআউট করেন অশ্বিন। অশ্বিন পরে রাবাদাকে (২৬) উইকেটের পেছনে ধরা পড়তে বাধ্য করেন। অশ্বিন দ্বিতীয় উইকেট দখল করেন মরকেলকে এলবিডব্লিউ বানিয়ে।

ভুবনেশ্বর কুমার চার উইকেট নিতে ৮৭ রান খরচ করেন। একটি করে উইকেট সামি, বুমরাহ এবং হার্দিকের।

 

ট্যাগ: Banglanewspaper দক্ষিণ আফ্রিকা ভারত টেস্ট