banglanewspaper

মো: মোজাম্মেল ভূইয়া, আখাউড়া (ব্রাক্ষণবাড়িয়): আখাউড়ায় তীব্র শীত আর হিমেল হাওয়ায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। কনকনে শীত আর ঘন কুয়াশার কারনে পৌর শহরসহ উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ছিন্নমুল, অসহায় হতদরিদ্র লোকজনের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে।

গত ৪দিন ধরে কুয়াশা আর তীব্র শীত অব্যাহত রয়েছে। মাঝে মধ্যে সুর্যের খানিক আলোর দেখা মিললে ও তা থাকছে নিরুত্তাপ। তীব্র শীতের কারনে দরিদ্র, দিনমজুর কর্মজিীবী মানুষেরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। মানুষের স্বাভাবিক কাজকর্মে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে।

প্রচন্ড শীতের কারনে সন্ধ্যার পরপরই রাস্তা ঘাট হাট বাজার জনশুন্য হয়ে পড়ছে। ছিন্নমুল, অসহায় হতদরিদ্র লোকজন খরকুটো দিয়ে আগুন জালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছে। শীতের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ার ফলে ঠান্ডাজনিত নানা রোগ দেখা দিয়েছে। এসব রোগীর মধ্যে শিশু ও বয়বৃদ্ধের সংখ্যাই বেশী।

আখাউড়া স্থাস্ব্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, শীতের কারনে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, শ্বাস কষ্ট জনিত রোগের সংখ্যা বেড়েছে। শীতের কারনে জবুথবু হয়ে পড়ছে প্রাণিকুল।

অপর দিকে শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শীতবস্ত্রের দোকানগুলোতে ভীড় বাড়ছে মানুষের। বিভিন্ন অভিজাত মার্কেটের দোকানগুলোতের শীতবস্ত্রের দাম আকাশ ছোয়া হওয়ায় সাধারন মানুষ বিপাকে পড়ছেন। নিম্ম ও মধ্য আয়ের লোকজন ছুটে চলছেন ফুটপাতের দোকান গুলোতে। ওই সব দোকান গুলোতে উপচে পড়া ভীড় লক্ষ করা গেছে।

সড়ক বাজার ব্যবসায়ী জনি মিয়া বলেন, দোকানে ৫০ টাকা থেকে ৫শটাকা দামের কাপড় পাওয়া যায়। হঠাৎ শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় শীতের গরম কাপড় বিক্রি ভালই হচ্ছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper আখাউড়া তীব্র শীত