banglanewspaper

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: সূদুর সাত সাগর তের নদী পাড়ি দিয়ে আমেরিকা থেকে ঝিনাইদহে শ্বশুর বাড়িতে এসে বিবাহবার্ষিকী পালন করলেন মার্কিন তরুণী এলিজাবেথ।

কালীগঞ্জ উপজেলার রাখালগাছি গ্রামে লাল শাড়িতে বাঙালি বধূ সেজে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে কেক কাটেন তিনি।

এর আগে ২০১৫ সালের মে মাসে ফেসবুকে তার সঙ্গে পরিচয় হয় বাংলাদেশি তরুণ মিঠুন বিশ্বাসের। এরপর ২০১৭ সালের ২ জানুয়ারি প্রেমের টানে আমেরিকা থেকে বাংলাদেশে চলে আসেন ওই মার্কিন তরুণী।

ওই বছরের ৯ জানুয়ারি খুলনার শালম এজি চার্চে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার রাখালগাছি গ্রামের নির্মল বিশ্বাসের ছেলে মিঠুন বিশ্বাসকে বিয়ে করেন। বিয়ে পড়ান চার্চের রেভারেল্ড লিতু মুন্সি। বিয়ের এক বছর পর যুক্তরাষ্ট্র থেকে এসে লাল শাড়িতে সেজে বাঙালি বধূ বেশে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে কেক কাটেন তিনি। এ সপ্তাহেই তিনি বাংলাদেশে এসেছেন বিবাহবার্ষিকী পালন করতে।

বিয়ের পর এলিজাবেথ বেশ কিছুদিন থাকেন শ্বশুরবাড়ি ঝিনাইদহের রাখালগাছিতে। আমেরিকা ফিরে যাওয়ার সময় স্বামী মিঠুনকে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন, কিন্তু ভিসা জটিলতায় তাকে রেখেই চলে যেতে হয় এলিজাবেথকে।

মিঠুন বিশ্বাস জানান, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে এলিজাবেথ এখানে আসেন শুধু মাত্র বিবাহবার্ষিকী পালন করতে।

ট্যাগ: Banglanewspaper বিবাহবার্ষিকী ঝিনাইদহ আমেরিকান তরুণী