banglanewspaper

নওগাঁ প্রতিনিধি: রাজশাহী নগরীতে স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়া গৃহকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর উপজেলার নলোবলো এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া তথ্যে উদ্ধার হয়েছে চুরি যাওয়া ২৩ ভরি ১২ আনা স্বর্ণালঙ্কার।

গ্রেফতার ওই গৃহকর্মী হলেন- ববিতা খাতুন (৩০) নওগাঁর মান্দা উপজেলার সূর্যনারায়ণপুরের লোকমান হোসেনের মেয়ে। বর্তমানে রাজশাহীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় সে আটক আছে। ববিতা খাতুন রাজশাহী নগরীর উপশহর নিউমার্কেট এলাকার ব্যবসায়ী সামিউল আলমের গৃহকর্মী ছিলেন।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে গৃহকর্তার অনুপস্থিতিতে প্রায় ২৪ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে উধাও হন ববিতা। এ নিয়ে শুক্রবার গৃহকর্তা সামিউল আলম থানায় অভিযোগ করেন। ন

গরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম বাদশা জানান, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মহাদেবপুর উপজেলার নলোবলো এলাকার এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ববিতাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাড়ির পাশের একটি ডাস্টবিনের নিচ থেকে পুঁতে রাখা এসব স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়। 

তিনি আরও বলেন, থানায় এসে গৃহকর্তা চুরি যাওয়া সব স্বর্ণালঙ্কার শনাক্ত করেছেন। তবে প্রায় এক ভরির একটা স্বর্ণালঙ্কার এখনো মেলেনি। জিজ্ঞাসাবাদে ববিতা সেটির তথ্য দিতে পারেননি। ধারণা করা হচ্ছে-সেটি বাইরে কোথাও পড়ে গেছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper নওগাঁ গ্রেফতার স্বর্ণালঙ্কার