banglanewspaper

তাবলিগ জামাতের ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপের আখেরি মোনাজাত শুরু হয়েছে। রোববার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে এ মোনাজাত শুরু হয়। এবারই প্রথম বাংলায় মোনাজাত হচ্ছে। মোনাজাত পরিচালনা করছেন হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জুবায়ের।

রবিবার সকাল ১১টার মোনাজাতে অংশ নিতে ভোর থেকেই ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা ছুটছেন টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে। মানুষের ভিড়ে রেডিসন, কুড়িল ফ্লাইওভার, খিলক্ষেত, উত্তরা, জসিমউদ্দীন, আবদুল্লাহপুর, চৌরাস্তা, আশুলিয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় যান চলাচল শিথিলতা করা হয়েছে। যানবাহন না পেয়ে অধিকাংশ মুসল্লি পায়ে হেঁটেই রওনা হয়েছেন।

ইজতেমার কারণে কুড়িল ফ্লাইওভারে ভারী যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে মোটরসাইকেল ও প্রাইভেটকার চলতে দেখা যাচ্ছে। বর্তমানে ইজতেমা ময়দান এলাকাজুড়ে অন্যরকম এক ধর্মীয় পরিবেশ বিরাজ করছে।

বেলা ১১টায় শুরু হতে যাওয়া আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশের মাওলানা হাফেজ মো. জোবায়ের। তিনি প্রথমবারের মতো বাংলায় মোনাজাত করবেন বলে ইজতেমার আয়োজকরা জানিয়েছেন। মোনাজাতের আগে তিনি ঈমান ও আমলের ওপর বিভিন্ন হেদায়েতি বয়ান করবেন।

উল্লেখ্য, এর আগে তাবলিগ জামাতের গুরুত্বপূর্ণ এই কাজ ‘হেদায়েতি বয়ান ও আখেরি মোনাজাত' বাংলাদেশের আলেমরা দুটি একত্রে কখনো করেননি বলে জানা যায়।

সাধারণত শেষ দিনের হেদায়েতি বয়ান ও আখেরি মোনাজাত উভয়টি দিল্লি মারকাজ থেকে আসা মুরুব্বিরা করে থাকতেন এবং তা উর্দু ভাষায় হয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

কিন্তু এবার ইজতেমায় ভারতের দিল্লিরি নিজামুদ্দিন মারকাজের মুরুব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভী ইজতেমায় অংশগ্রহণ করতে না পারায় এই প্রথম বাংলাদেশি আলেমদের মাধ্যমে শেষ দিনের গুরুত্বপূর্ণ কাজ দুটি আঞ্জাম দেয়া হচ্ছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper লাখো মুসল্লি মোনাজাত বিশ্ব ইজতেমা তাবলিগ