banglanewspaper

শাফিউল কায়েস: নিলয় অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। পড়ালেখায় তেমন নাম কুড়াতে না পারলেও দুষ্টুমিতে নাম কুড়িয়েছে সে।

পাড়ার ছেলেদের সাথে আড্ডা মেরে দিনের সবটুকু সময় পার করে দেয়।

কোন দিন স্কুল ফাঁকি দিয়ে চলে ক্রিকেট খেলা,খাওয়া-দাওয়ার চিন্তা সে করে না।

শীতকালে এক রাতে তার গ্রামের বন্ধুরা মিলে কন্সার্ট শুনতে যাবে উপজেলা চত্বরে। শহর থেকেবড় নাম করা শিল্পীরা আসবে,

তারা রাতের খাওয়া করে রওনা দিলো কনসার্ট এর উদ্দেশে।গিয়ে দেখে লোকে লোকারন। কনসার্ট রাত ২ টার সময় শেষ হলো।

রাস্তা দিয়ে বাড়িতে আসার সময় নিলয় দেখতে পেলো একটা গাছের নিচে কি জানি শুয়ে আছে,তার বন্ধুরা মিলে কাছে গিয়ে দেখলো,এক বৃদ্ধ লোক শীতে হু হু করে কাঁপছে।

পরনে তার তেমন শীতের ভাল কাপড় নেই তার উপর আবার পাতলা, ছেঁড়া কম্বল গায়ে জড়ানো তার।

বিছানা হিসেবে বেছে নিয়েছে ধানের খড়।

এই দেখে নিলয় খুব কষ্ট পেলো। বাড়িতে আসতে আসতে সে চিন্তা করে, আরো কত লোক এভাবে রাস্তায় শুয়ে আছে কে জানে!

নিলয় তার বন্ধুদের বলে তোরাতো নিজের চোখে দেখলি,ঐ বৃদ্ধলোক কি ভাবে আছে এই তীব্র শীতে,এমন অনেক অসহায় লোক আছে রাস্তায় রাস্তায়।

আমরা কি এনাদের জন্য কিছু কারতে পারি না?

শুভ্র(নিলয়ের বন্ধু):তুই কি করতে চাচ্ছিস?

নিলয়: আমরা বন্ধুরা মিলা শীতবস্ত্র দিয়ে অসহায়দেরকে সাহায্য করতে।

আসিফ :কি ভাবে? আমরা তো কোন ইনকাম করিনা।

কাফি :এই ৬ জন মিলে আমরা কি করবো?.

নিলয় : একটা ঘরকে আলোকিত করতে একটি মাত্র বাতি প্রয়োজন,তাহলে আমরা এখানে আছি ৬ জন অর্থাৎ ঘরটা আরো আলোকিত করতে কম সময় লাগবে।

বন্ধুরা সকলে বলল,ঠিক আছে,

শুভ্র : এই টিমের একটা নাম দিলে কেমন হয়?

আসিফ: আলবাত ভালো হই,কি দেয়া যায়??

শুভ্র: পেয়েছি "নীল টিম "দিলে কেমন হয়রে আসিফ,।

আসিফ: ফাটাফাটি,।

জাহিদ: তাহলে কাল থেকে আমরা কাজে লেগে পড়ি।

শুভ্র: আমাদের কি করতে হবে রে নিলয়?

নিলয়: কাল কেউ স্কুলে যাবো না।

জাহিদ ভাড়া করবে মাইক,কাফি কতকগুলো পোষ্টার বানাবি রানা ভাইয়ের কম্পিউটারের দোকান থেকে,রনি তুই একটা অটো ভাড়া করবি,।

শুভ্র : আমাদের নীল টিমের কাজ তাহলে কাল থেকে শুরু করবো তাইতো?

নিলয়: হ্যা,কাল থেকে আমাদের অভিযান শুরু।

পরের রাতে নিলয় ঐ বৃদ্ধ লোক কে তার বাড়ি থেকে ভালো পুরনো একটা কম্বল এনে দিলো।

এতে করে বৃদ্ধ লোকের মুখে হাসি ফুটল।

এ দিকে নিলয়ের বন্ধুরা মিলে পরের দিন,সবার বাড়ি বাড়ি গিয়ে ও গ্রামের গণ্যমান্য ব্যাক্তি দের কাছ থেকে টাকা তোলা শুরু করলো, এতে নানা জন নানা খারাপও করলো এতে নীল টিম না শোনার। অভিনয়ে তাদের কাজ চালিয়ে যেতে লাগলো।

কয়েক দিনের টাকা তোলার অভিযানে কিছু শীতবস্ত্র কিনার মত টাকা উঠলো,

তারা বাজার থেকে শীতবস্ত্র কিনে আনে। তার পর তারা নিজ গ্রামে ও পার্শ্ববর্তী গ্রামে নীল টিম "শীতবস্ত্র-বস্ত্রহীন" যাকে সাহায্যের প্রয়োজন তাদের কে সাহায্য করেন।

অসহায়দেরকে সাহায্য করতে নীল টিম অনেক অনেক আনন্দিত।

নীল টিম একটি সার্থক সমাজসেবক টিম।

ট্যাগ: Banglanewspaper শীতবস্ত্র