banglanewspaper

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কানাডার টরেন্টোতে হিজাব পরার কারণে আক্রান্ত হওয়া মুসলিম শিশু খাওলা নোমানের (১১) পাশে দাঁড়িয়েছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। প্রধানমন্ত্রী শুক্রবার এক টুইটবার্তায় বলেছেন, খাওলার ঘটনায় আমার হৃদয় ভেঙে গেছে। আমি খুবই মর্মাহত।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কানাডা একটি উন্মুক্ত দেশ। এখানে সবাইকে স্বাগত জানানো হয়। খাওয়ার ওপর যে ঘটনা ঘটেছে তা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

গত শুক্রবার কানাডার টরেন্টোতে হিজাব পরা মুসলিম কিশোরী খাওজা নোমানের (১১) উপর হামলা করে এক দুর্বৃত্ত। 

নোমান জানায়, বাড়ি ফেরার সময় এক ব্যক্তি দুবার তার হিজাব কেটে ফেলার চেষ্টা করে। এতে সে প্রচণ্ড ভয় পেয়ে যায়। হামলাকারীকে ভয় দেখানোর জন্য তার দিকে ফিরে সে চিৎকার করে, এর পর ভাইকে নিয়ে ছুটে পালিয়ে যায়। পরে সে দেখতে পায় তার হিজাবের নিচ থেকে ওপরে প্রায় ১২ ইঞ্চি কাটা।

প্রথম হামলার পর নিরাপত্তার জন্য দুই ভাইবোন অন্য ছেলেমেয়েদের সঙ্গে হাঁটছিল; কিন্তু বাড়ির রাস্তা আলাদা হওয়ায় একটা সময় অন্যদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে তারা। এর ১০ মিনিটের মধ্যেই হামলাকারী দুর্বৃত্ত আবার ফিরে আসে। এবারও সে শিশুটির হিজাব কাটার চেষ্টা করে। তখন নোমান চিৎকার দিয়ে ভাইয়ের সঙ্গে দৌড়ে আত্মরক্ষা করে।

 

এ ঘটনায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এ ধরণের ঘৃণ্য কাজ এ দেশের শান্তিপ্রিয় মানুষের পক্ষে করা সম্ভব না। এ সন্ত্রাসী কাণ্ড যে করেছে তাকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

ট্যাগ: Banglanewspaper কানাডা জাস্টিন ট্রুডো খাওজা নোমান