banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিনিধি : সোসাইটি ফর এন্টি এডিকশন মুভমেন্ট (SAAM) এর উদ্যোগে গাইবান্ধার মোল্লারচর ও কুড়িগ্রামের রাজিপুর উপজেলার মোহনগঞ্জচর এলাকায় ৪৮০০ শীতার্ত পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ করে SAAM।

স্যাম এর অফিস সম্পাদক এম আই মহিদ ও সমাজসেবা সম্পাদক মঞ্জুরুল হাসানের এর পরিচালনায় এই শীতবস্ত্র বিতরণ সম্পন্ন হয়।

যারা শীতবস্ত্র নিয়ে যাবার কথা ভাবছেন

অন্যান্য বছরের তুলনায় চলতি বছর শীতের প্রকপ অত্যান্ত বেশি হওয়ায় অনেক সেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো শীতবস্ত্র নিয়ে দেশের উত্তরাঞ্চলে যাচ্ছেন। তারা যেন সঠিক যায়গাতে কম্বল পৌছাতে পারেন। কুড়িগ্রামের রাজিবপুর, রৌমারি, চিলমারি, উলিপুর, ভুরুঙ্গামারির চর এলাকা, ও গাইবান্ধার ১৯৬টি চর এবং লালমনিরহাটের কয়েকটি চরে কম্বল নিয়ে যেতে পারেন। পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁও, নীলফামারি, দিনাজপুর, রংপুর এলাকাতে তাপমাত্রা অনেক কম থাকলেও চর এলাকার তুলনায় এই এলাকাগুলো বেশ উন্নত। আর যারা পুরাতন কাপড় নিয়ে উত্তরবঙ্গে যাচ্ছেন চর এলাকা তাদের জন্য উত্তম যায়গা হবে।

চর এলাকাতে নৌ পথ ছাড়া অন্যান্য যাতায়াত ব্যাবস্থা ভালো না থাকার কারণে সেখানে শীতবস্ত্র পৌছায় না। প্রতিবছর ভারতি পানির ঢলে চরগুলো পানির নিচে তলিয়ে যায় কখনো বা একেবারে নদীর সাথে মিসে যায়। ঘরবাড়ি পরিবার নিয়ে তারা চলে যায় নতুন কোন চরে। অনেকেরই পর্যাপ্ত গরম কাপড় নেই।

গরম কাপড়ের সাথে শীতের প্রশাধনী ও ঠান্ডা কাশি সর্দিজ্বরের ঔষুধও নিতে পারেন।

ট্যাগ: Banglanewspaper SAAM শীতবস্ত্র বিতরণ