banglanewspaper

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধিঃ ইন্দুরকানীতে ৪ সংখ্যালঘুর বাড়িতে গণডাকাতি করে ১০ ভরি স্বর্ণালংকার নগদ টাকা সহ মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এসময় ডাকাতের হামলায় বিপুল বৈরাগী ও রতন আহত হয়েছে।

সোমবার গভীর রাতে উপজেলার হিন্দু অধ্যুষিত রামচন্দ্রপুর গ্রামে সংঘবদ্ধ একটি ডাকাত দল একই সাথে ৪ বাড়িতে গণডাকাতি করে। এসময় ডাকাত দল সুশেন মন্ডলের ঘরের দরজার সিটকানি কৌশলে খুলে ঘরে প্রবেশ করে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে বেধে ফেলে। পরে তার নাতনী নবম শ্রেণির ছাত্রীকে তুলে নেয়ার হুমকি দেয়।

তখন বিদেশ থেকে আসা সুশেন মন্ডলের মেয়ে ভয়ে তাদের কাছে থাকা ৫ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৩৫ হাজার টাকা, ৭টি বিদেশী টর্চ লাইট, ৩টি মোবাইল ফোন নিয়ে যায় এবং ঘরে থাকা মালামাল তছনছ করেে ফেলে।

এছাড়া পার্শ্ববর্র্তী বিপুল বৈরাগীর ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঢুকে তাদেরকে জিম্মি করে ১ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা, রতন মজুমদারের ঘরের জানালা ভেঙ্গে ডাকাত দল ঘরে ঢুকে নগদ ৪০ হাজার টাকা, নিরঞ্জন মাঝির ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে সকলকে জিম্মি করে নগদ ১৫ হাজার টাকা, ২টি স্বর্ণের চেইন, ২টি মোবাইল ফোন সহ মূল্যবান মালামাল নিয়ে যায় ডাকাত দলটি।

অপরদিকে গাবগাছিয়া গ্রামের ফরিদ গাজীর বাড়ির সকলে বেড়াতে যাওয়ায় এই সুযোগে চোরাই চক্র তার বিল্ডিংয়ের দরজার সিটকানি ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে ৫ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে যায় এবং ঘরের আসবাবপত্র তছনছ করে ফেলে।

এ বিষয়ে ডাকাতির শিকার রামচন্দ্রপুর গ্রামের সুশেন মন্ডল জানান, ৮  থেকে ৯ জনের একটি ডাকাত দল সোমবার রাতে দরজার সিটকানি খুলে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে আমাদের সকলকে জিম্মি করে ৫ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৩৫ হাজার টাকা, ৭টি বিদেশী টর্চ লাইট, ৩টি মোবাইল ফোন নিয়ে যায়।

পত্তাশী ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন হাওলাদার জানান, সোমবার গভীর রাতে রামচন্দ্রপুর গ্রামে ৪টি হিন্দু বাড়িতে গণডাকাতি হয়েছে।

উপজেলা আ’লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোঃ বজলুর রহমান মিন্টু তার ফেসবুক পেইজে সংখ্যালঘুর বাড়িতে গণডাকাতির কথা নিশ্চিত করে স্ট্যাটাস দিয়েছে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন জানান, এঘটনায় এখন পর্যন্ত কেহ অভিযোগ নিয়ে আসেনি। তবে অভিযোগ পেলে মামলা নেয়া হবে।

ট্যাগ: Banglanewspaper ইন্দুরকানী বাড়ি গণডাকাতি