banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: সংসদ সদস্যদের সাথে জনগণকে সরাসরি যুক্ত করার মাধ্যম আমার এমপি ডটকমের উদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর আইসিটি টাওয়ারে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকসহ অন্তত ৩০ জন সংসদ সদস্যের উপস্থিতিতে যাত্রা শুরু করে ডিজিটাল এই প্ল্যাটফর্মটি।

এই প্লাটফর্মটিতে পাওয়া যাবে দেশের সকল এমপির তথ্য। যে কেউ এই ওয়েবসাইটে ঢুকে নিজের এলাকা ও এমপির নাম দিলেই তার সব তথ্য চলে আসবে। নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা এমপিদের সকল সম্পদ বিবরণীও থাকবে সেখানে।

কেউ চাইলে তার এমপিকে ই-মেইল, ফোন, টুইট ও প্রশ্ন করার অপশনও পেয়ে যাবেন এই ওয়েবসাইটে। দরকারি মেনুতে ক্লিক করে যোগাযোগ ও সব প্রশ্ন করা যাবে। এমপির বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানাও আছে ওই ওয়েবসাইটে।

ওয়েবসাইটটির নির্মাতা লন্ডনভিত্তিক আইটি প্রতিষ্ঠান টেকশেড লিমিটেড। তবে ওয়েবসাইটটির প্রধান অফিস সিলেটের হবিগঞ্জে।

প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার প্রবাসী বাংলাদেশী সুশান্ত দাস গুপ্ত দৈনিক জাগরণকে জানান, আমরা জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছি। এর মধ্য দিয়ে একজন সাধারণ মানুষ খুব সহজেই তার জনপ্রতিনিধিকে খুঁজে পাবে। তার মনের কোণে জমে থাকা প্রশ্ন করতে পারবে যেকোনো সময়। ওয়েবসাইটটিতে জন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে পিটিশন দাখিল করারও সুযোগ থাকবে। যদি সেই বিষয়ে একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক মানুষ পিটিশন দাখিল করেন তবে সেই বিষয়টি সংশ্লিষ্ট এমপির নজরে ওয়েবসাইটটির উদ্যোক্তারাই আনবেন।’

এই উদ্যোগের পরিকল্পনা সম্পর্কে সুশান্ত দাস জানান, ২০১০ সালে এই ওয়েবসাইটটি বানানোর ভাবনা আসে আমাদের মাথায়। তখন থেকেই আমরা পরিকল্পনা করেছি এমন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার। এরপর ২০১৬ সালে এটি আমরা পরীক্ষামূলকভাবে চালু করেছি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডেপুটি স্পিকার বলেন, আমার এমপি ডটকম’-এর উদ্যোগটি খুব ইতিবাচক। তবে মনে রাখতে হবে এর দ্বারা যেন আমাদের কাছে নেতিবাচক কোনো মন্তব্য না আসে। ইতোমধ্যে দেড়শ এমপি এ মাধ্যমটিতে যুক্ত হয়েছে। আগামী মার্চের মধ্যে ৩৫০ জন এমপিকেই এই ওয়েবসাইটে যুক্ত দেখতে চাই।

তিনি বলেন, আমাদের দেশ একটি গণতান্ত্রিক ও অসম্প্রদায়িক দেশ। যাতে সেই দেশে অগণতান্ত্রিক কোনো সরকার আসতে না পারে, সেই লক্ষ্যে আমার এমপি ডটকমের সংশ্লিষ্টদের কাজ করতে হবে। এটার মাধ্যমে আপনাদের সত্য ঘটনা তুলে ধরতে হবে। সততা ও নিষ্ঠার মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করতে হবে। তাহলে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া সম্ভব হবে।

ড. দীপু মনি বলেন, নাগরিক সেবা এখন হাতের মুঠোয়। যে কোন নিউজ চ্যানেল বা অনলাইন পোর্টাল থেকে আমার মনে হয় আমরা আরও বেশি এগিয়ে। কারণ সারাক্ষণই আমাদের জনগণের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে হয়। আর ডিজিটাল এই প্ল্যাটফর্মের উদ্যোগ খুবই ইতিবাচক।

আমার এমপি ওয়েবসাইট উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শম্পা রেজা। আমার এমপি ডটকমের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সুশান্ত দাস গুপ্তের সভাপতিত্বে এতে আরও বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার মাহমুদ, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য বাণী ইয়াসমিন হাসি, কুহেলী কুদ্দুস মুক্তি প্রমুখ, সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মো. মোখলেসুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সেরা ১০ উত্তরদাতা এমপিকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। ক্রেস্ট দেয়া হয় সেরা ১০ অ্যাম্বাসেডরকেও।

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে অনানুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা হওয়া এই প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে এখন পর্যন্ত ১৫০ জন এমপি সংযুক্ত হয়েছেন। সাইটটি ব্যবহার করে জনগণ তার স্ব স্ব এলাকার জনপ্রতিনিধির কাছে ৭৩০টি প্রশ্ন করেছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper এমপি ওয়েবসাইট সংসদ