banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ পহেলা ফাল্গুন। এর সাথে সাথে আমাদের মাঝে শুকনো পাতায় ভর করে এসেছে ঋতুরাজ বসন্ত। বসন্ত ডানা মেলছে, আজ মন শুধুই উদাস করার পালা। ফাগুনের আগুনে হৃদয় রাঙানোর পালা। ফাগুন বরণে মন সেজেছে ফুলের সৌরভে। বসন্ত মন ফুলেল আবেগে যেন উড়ু উড়ু করছে।

শহরে পলাশ, শিমুলেরা পাপড়ি মেলে ধরেনি এখনও। গাছে গাছে কলির দেখা মিলেছে সবে। তবে আমের মুকুলের মনকাড়া গন্ধে বসন্তের রং লেগেছে বেশ আগেই। বসন্তকে স্বাগত জানিয়ে রিক্ত হস্তে শীত বেলার বিদায় লগ্নও ঘটেছে ইতোমধ্যে।

‘ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক আজ বসন্ত।’ ফুল ফোটার পুলকিত এই দিনে বন-বনান্তে, কাননে কাননে পারিজাতের রঙের কোলাহলে ভরে উঠছে চারদিক। আজ বৃহস্পতিবার। পয়লা ফাল্গুন। ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন। বিপুল ঐশ্বর্যের অধিকারী ঋতুরাজ বসন্তকে বরণ করে নেওয়ার দিন।

রবীন্দ্রনাথের ভাষায়, ‘আজি দখিন-দুয়ার খোলা/ এসো হে, এসো হে, এসো হে আমার বসন্ত এসো. … এ বসন্তেই ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে বাঙালির স্বাধীনতার বীজ রোপিত হয়েছিল। বসন্তেই বাঙালি মুক্তিযুদ্ধ শুরু করেছিল। তাই কেবল প্রকৃতি আর মনে নয়, বাঙালির জাতীয় ইতিহাসেও বসন্ত আসে এক বিশেষ মাহাত্ম্য নিয়ে। বসন্ত হয়ে উঠেছে অসাম্প্রদায়িক চেতনার এক অনন্য উৎসব। ফাগুনের প্রথম দিনে বাসন্তী রঙের শাড়ি পরে পথে নামে তন্বী-তরুণীরা।

পঞ্জিকার দিনক্ষণ গুনে ঋতুরাজ বসন্তবরণে ফুলের বাগানে রং লেগেছে আজই। ফুলে ফুলে মন দুলবে। ফুলে ফুলে ভালোবাসা মিলবে। ফুল বাগানে মিলে গিয়ে মন বাগানও যেন একাকার।

ফুল নিয়ে বাঙালির মাতামাতি পুরনো। শ্রদ্ধা, ভালোবাসা, ভক্তিতে ফুল যেন তুলনাহীন। ফুলে প্রেম নেই- এমন মানুষ মেলানো ভার। তবে দিবসগুলোত ফুলের কদর যে দিন দিন বেড়েই চলছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

আজ বসন্তবরণ সারাদেশেই পালিত হবে নানা আয়োজনে। সঙ্গে আগামীকালের বিশ্ব ভালোবাসা দিবসেরও উত্তাপ। দু’দিনের উন্মাদনায়,আয়োজনে মাতবে দেশ। প্রেম-ভালোবাসার স্বর্গীয় সুধায় তরুণ-তরণীরা ফুলকেও সঙ্গী করবে এ দু’দিন।

ট্যাগ: Banglanewspaper ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক আজ বসন্ত