banglanewspaper

ক্রীড়া ডেস্ক : দুই জায়ান্টের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখার আশায় বসেছিলেন বিশ্বের কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমী। তবে সে আশায় গুড়েবালি, ফাইনালটা হয়েছে একেবারেই একপেশে। 

বিখ্যাত ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে আর্সেনালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ইংলিশ লিগ কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মানসিটি। গত পাঁচ বছরে তৃতীয়বার এই শিরোপা হাতে নিল সিটিজেনরা। 

ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে ম্যাচ জমে ওঠে। তবে ম্যাচের ১৮ মিনিটেই এগিয়ে যায় ম্যানসিটি। দলের হয়ে প্রথম গোলটি করে আর্জেন্টাইন তারকা আগুয়েরো। গোলরক্ষক ব্রাভোর নেয়া লম্বা শট নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ম্যানসিটি।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে আক্রমণের গতি বাড়ায় সিটি। ফলে ব্যবধান দ্বিগুণ হতেও সময় লাগেনি। ৫৮ মিনিটে ব্যবধান ২-০ করেন ডিফেন্ডার কোম্পানি। কেভিন ডি ব্রুইনের নিচু কর্নারে বক্সের বাইরে থেকে শট নেন জার্মান মিডফিল্ডার ইলকাই গিনদোয়ান। গোলমুখ থেকে পা বাড়িয়ে বলটা শুধু জালে ঠেলেন বেলজিয়াম তারকা।

সাত মিনিট পর ৩-০ করেন ডেভিড সিলভা। দানিলোর বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে কোণা থেকে বাঁ পায়ের শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার।

শেষ পর্যন্ত ৩-০ গোলের জয়ে শিরোপা উৎসবে মাতে ম্যানসিটি। ২০১৬ সালে দায়িত্ব নেয়ার পর কোচ পেপ গার্দিওলার অধীনে এটি দলটির প্রথম শিরোপা। ইংলিশ ফুটবলের তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতা-লিগ কাপে এটি স্কাই ব্লুজদের পঞ্চম শিরোপা।

গার্দিওলার চোখ এবার ট্রেবলে। প্রিমিয়ার লিগে নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানইউর চেয়ে ১৩ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে ম্যানসিটি। এ ছাড়া চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে দলটি।

আর এ নিয়ে ষষ্ঠবার রানার্সআপ হল আর্সেনাল। প্রিমিয়ার লিগ ও এফএ কাপের পর জনপ্রিয় এ টুর্নামেন্টে দলটি সবেশেষ চ্যাম্পিয়ন হয় ১৯৯২-৯৩ মৌসুমে।

ট্যাগ: banglanewspaper আর্সেনাল ইংলিশ লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটি