banglanewspaper

মৌলভীবাজার: বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী ৭৪০ নম্বর আন্তনগর উপবন এক্সপ্রেস ট্রেন। বগির চাকার রড ভেঙে যাওয়ার পর দুটি স্টেশন পার হয়ে এসে আন্তনগর ট্রেন উপবন এক্সপ্রেসকে থামতে হয়েছে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর স্টেশনে।

ট্রেনটি দুই ঘণ্টা আটকে থাকার পর ক্ষতিগ্রস্ত বগিটি রেখে আবার যাত্রা করেছে। বুধবার ৭ মার্চ দিবাগত রাত ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার কবির আহমদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়।

রেল্ওয়ে সূত্রে জানা যায়, সিলেট-আখাউড়া রেলপথের শমশেরনগর স্টেশন সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত ১০টার দিকে ঢাকাগামী আন্তনগর উপবন ট্রেন সিলেট থেকে যাত্রা শুরু করেছিল। ট্রেনটি রাত সাড়ে ১১টার দিকে কুলাউড়া স্টেশনের পরবর্তী লংলা স্টেশন অতিক্রমকালে ট্রেনের বগি (গ-প্রথম শ্রেণি বার্থ) ও চাকার সংযুক্ত একটি লোহার রড ভেঙে যায়।

এমতাবস্থায় ট্রেনটি টিলা গাও, মনু স্টেশন অতিক্রম করে রাত ১২টায় শমশেরনগর স্টেশনে এসে যাত্রা বিরতি করে। এর মাঝে মনু রেল সেতুসহ অনেকগুলো সেতু অতিক্রমকালে বগির ঝুলে থাকা লোহার রডের কারণে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতেও পারত। পরে চালক বিষয়টি বুঝতে পেরে উপবন ট্রেন থেকে ক্ষতিগ্রস্ত বগিটি কেটে শমশেরনগর স্টেশনের ২ নম্বর লাইনে রেখে বাকি যাত্রীবাহী বগি নিয়ে রাত ২টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে।

এব্যাপারে শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার কবির আহমদ বলেন, রাতের যাত্রীবাহী উপবন ট্রেনটি বড় ধরনের দুর্ঘটনায় পড়তে পারত। তবে কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। ক্ষতিগ্রস্ত বগিটি কেটে শমশেরনগর স্টেশনের ২ নম্বর লাইনে রেখে বাকি যাত্রীবাহী বগি নিয়ে রাত ২টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করেছে উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি।

ট্যাগ: Banglanewspaper প্রাণে বাঁচলেন ট্রেন যাত্রী