banglanewspaper

কলোম্বতে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টির ইতিহাসের সবচেয়ে গৌরবময় জয় রচনা করেছেন মুশফিকুর রহিম। তার অবদানে প্রেমাদাসায় স্বাগতিকদের ৫ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। দলকে জিতিয়ে ম্যাচ সেরার তকমাটাও নিজের করে নেন তিনি।

উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম এদিন ক্যারিয়ার সেরা ৩৫ বলে ৭২ রানের এক দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। অবশ্য ৩৫ সংখ্যাটা তার জন্য সৌভাগ্যেরও বলা যায়। কারণ সদ্যে হওয়া ছেলে সন্তানের বয়সও যে ছিলো সবে ৩৫ দিন। তাইতো ক্যারিয়ার সেরা এই ইনিংসটা একমাত্র সন্তান মোহাম্মদ শাহরোজ রহিম মায়ানকে উৎসর্গ করলেন ম্যাচের নায়ক মুশফিক। গত ৫ ফেব্রুয়ারি মুশফিকুর রহিম ও তার স্ত্রী জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডির প্রথম সন্তান মায়ান পৃথিবীর আলো দেখে।

নিজের ৬৫তম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেললেন মুশফিক। এদিন ৩৫ বলে ৪ ছক্কা এবং ৫ চারের সাহায্যে অপরাজিত ৭২ রান করেন।শনিবারের আগে টি-টোয়েন্টির ক্ষুদ্র ফর্মেটের তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ছিল ৬৬* রান। এদিন নিজেকেও ছাড়িয়ে যান মুশফিক। তার নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার দিনে বাংলাদেশও ছাড়িয়ে যায় অতিতের সব রেকর্ড।

শ্রীলংকার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে স্বাগতিক দলের সঙ্গে পাল্লা দিয়েই রান তুলেবাংলাদেশ দল। বরং তাদের চেয়ে বেশি। লংকানরা উদ্বোধনীতে যেখানে ৪.৩ ওভারে ৫৪ রান তুলে। সেখানে বাংলাদেশ তুলে ৫.৫ ওভারে তুলে নেয় ৭৪ রান। ইনিংসেরশুরুটা ভালো হওয়ায় জয়ের রাস্তা পরিস্কার হয়ে যায়।

উদ্বোধনীতে ৭৪ রানের সেরা জুটি গড়ে পরের ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজ করে দেন লিটন-তামিম। ওপেনারদের গড়ে দেয়া সেই ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে লড়াই করে গেছেন মুশফিক, সৌম এবং মাহমুদউল্লাহরা। ১৯ বলে ৫ ছক্কা আর ২ চারে সাহায্যে ৪৩ রান করেন লিটন। দলকে শতরানে পৌঁছে দিয়ে ফেরেন তামিম। তার আগে ২৯ বলে ৪৭ রান করে যান।

 

ট্যাগ: banglanewspaper মুশফিক টি-টোয়েন্টি