banglanewspaper

নেপালের কাঠমাণ্ডুতে বাংলাদেশি এয়ারলাইন ইউএস-বাংলার বিধ্বস্ত বিমানটির দুর্ঘটনায় পড়ার কারণ জানা গেছে। নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথোরিটি জানিয়েছে, দিক ভুল করে রানওয়েতে ল্যান্ড করার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে বিমানটি।     

নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথোরিটির মহাপরিচালক সঞ্জিব গৌতম এ ব্যাপারে কাঠমাণ্ডু পোস্টকে জানান, ‘বিমানটিকে নির্দেশনা দেয় ছিলো কোটেশ্বরের উপর দিয়ে রানওয়ের দক্ষিণ দিক থেকে নামার জন্য। কিন্তু এটি উত্তর দিক থেকে নামার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আছড়ে পড়ে।’

তিনি আরও জানান, ‘আমরা ধারণা করছি কোনো একটি যান্ত্রিক গোলযোগের জন্য এমনটা হয়েছে। এই অদ্ভুত অবতরণের রহস্য উদঘাটনে আমরা এখনও কাজ করে যাচ্ছি।’

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ৭৮ আসনের বোম্বার্ডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ-৪০০ মডেলের উড়োজাহাজটি স্থানীয় সময় ২:২০ মিনিটে বিধ্বস্ত হয়। এসটু-এইউজি নামে নিবন্ধিত ফ্লাইটটি ঢাকা ছেড়েছিলো দুপুর ১:৪৩ মিনিটে।

বিমানবন্দরের আরেক মুখপাত্র বীরেন্দ্র প্রসাদ শ্রেষ্ট জানিয়েছেন এই মুহূর্তে বিধ্বস্ত বিমানের আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টায় আছেন তারা।

দুর্ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরটিতে সবধরণের উড়োজাহাজের ওঠা-নামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।   

ঘটনাস্থলে উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে নেপালের সেনাবাহিনী। ৬৭ যাত্রীর মধ্যে এখনও পর্যন্ত ৩০ জনকে উদ্ধার করা গেছে বলে জানা যায়। 

সূত্র : কাঠমাণ্ডু পোস্ট, রয়টার্স
 

ট্যাগ: banglanewspaper নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে