banglanewspaper

এম. পলাশ শরীফ, বাগেরহাট: র ফকিরহাট উপজেলা সদরের পাগলাশ্যাম নগর গ্রামে বসবাসকারী, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের অবসরপ্রাপ্ত ট্রাফিক পরিদর্শক বীর মুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান নিজের চাকুরির কষ্টার্জিত ও হাউস লোনের টাকা দিয়ে খুলনার লবনচরা  থানাধীন হরিণটানা মৌজায় হেদায়েতুল্লাহ মসজিদের নিকট ক্রয়কৃত ৮ কাঠা জমির মধ্যে প্রায় অর্ধেক জমি স্থানীয় ভূমি দস্যু বাহিনী জবর দখল করে সীমানা প্রাচীর নির্মান করেছে।

জবর দখললীয় সম্পত্তি উদ্ধারে ঐ মুক্তিযোদ্ধা স্থানীয় ভাবে ন্যায় বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন প্রতিকার পায়নি। উপরন্তু জবর দখলীয় ভূমি দস্যুরা তাকে জমি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করতে হত্যার হুমকি সহ নানা ভাবে হয়রানী করছে।

এ বিষয়ে ভুক্তভূগী মুক্তিযোদ্ধা নিরুপায় হয়ে অবশেষে ১৩ মার্চ ২০১৮ তারিখে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, মুক্তিযোদ্ধ্যা বিষয়ক মন্ত্রী ও মহা পুলিশ পরিদর্শক বরাবর পৃথক পৃথক ভাবে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। ভুক্ত ভুগী  মুক্তিযোদ্ধা লিখিত অভিযোগে দাবী করেছেন ভূমি দস্যু শাকিল, হাবিব, কবির গং মুক্তিযোদ্ধার জমি উভয় পাশ থেকে জবর দখল করে নিয়েছে এবং সিমানা প্রাচীর নির্মান করেছে। প্রতিকারের আশায় মুক্তিযোদ্ধা খুলনা জেলা প্রশাসকের নিকট আবেদনের প্রেক্ষিতে স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিষয়টি ১নং জলমা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন। চেয়ারম্যানের উপস্থিত ছাড়াই হরিণটানা ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম লিটন মুক্তিযোদ্ধার জমি বুঝিয়ে না দিয়ে অবৈধ দখলকারদের পক্ষ নিয়ে একটি ভুয়া শালিসনামা প্রস্তুত করেন ।

এ বিষয়ে স্থানীয় লবনচরা থানায় পুলিশের কাছে বারবার প্রতিকার চেয়ে ও তিনি ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।মুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান একজন বয়বৃদ্ধ ব্যাক্তি, তার বয়স এখন ৬২ বছর, ভদ্র নিরীহ একজন সরলমনা ব্যক্তিত্ব। মুক্তিযুদ্ধের রনাঙ্গনে তার অসমান্য অবদানের ভূমীকা বিভিনś পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে, এমন একজন মুক্তিযোদ্ধার আর্তনাদ আমি শেষ বয়সে নিরাপদে বসবাসের জন্য ক্রয়কৃত জমিতে কেন শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করতে পারব না ?

ভূমি দস্যুরা কী আইনের উদ্ধে ? স্থানীয় সমাজপতি, থানা পুৃলিশ সহ বিভিনś ব্যক্তি ও প্রতিষ্টানের নিকট ন্যায় বিচারের আশায় ঘুরতে ঘুরতে তিনি এখন ক্লান্ত ও দিশেহারা। এ বিষয়ে নিরীহ এলাকাবাসী ও ভুক্ত ভুগী মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে  সরকার ও প্রসাশনের উচ্চ পর্যায়ের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে ন্যায় বিচার দাবী করেছেন।

ট্যাগ: Banglanewspaper ফকিরহাট মুক্তিযোদ্ধা জমি হরিনটানা