banglanewspaper

প্রতিভা নাকি কখনো লুকিয়ে রাখা যায়না, তবে সেই প্রতিভা বিকশিত করতে ঘাম ঝরাতে হয় বেশ। ব্রেট লি’র ক্ষেত্রে নিয়মটা একদম উল্টো প্রায়। ক্রিকেট মাঠে পার করেছেন নিজের সেরা সময়টাই, বাইশ গজে তুলেছেন গতির ঝড়। কাবু করেছেন বিশ্বের বাঘা বাঘা সব ব্যাটসম্যানদের। ক্রিকেট ছাড়ার পর নিজেকে আরও অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে ব্রেট লি। গায়ক, কম্পোজার, অভিনেতার পর এখন মেখেছেন ধারাভাষ্যকারের তকমা। শ্রীলঙ্কাতে নিদাহাস কাপের কমেন্ট্রি দিতে এসে, সেই লি মজেছেন পেসার রুবেল হোসেনের বোলিংয়ে।

ভিন্ন অ্যাকশনের বোলার রুবেলের খেলাটা খুব মন দিয়েই দেখেছেন অজি সাবেক পেসার। রুবেলের বোলিং বৈচিত্র্যে মুগ্ধ হয়েছেন খুব। এর সাথে তার মন কেড়েছে রুবেলের ইয়র্কারের ধারাবাহিকতাও।

'আমার কাছে সেই সম্ভবত একমাত্র খেলোয়াড় যে এই টুর্নামেন্টে সিমের ব্যবহার যথাযথ করতে পেরেছে, ছোটো রান আপে এসে ভালো ইয়র্কার দিয়েছে।' অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৭৬ টেস্টে ৩১০ এবং ২২১ ওয়ানডেতে ৩৮০ উইকেট শিকারী ৪১ বছরের ব্রেট লি বলেছেন, 'হ্যাঁ, আসরে সবাই ইয়র্কার দিয়েছে কিন্তু এটা আমি আরো বেশি দেখতে চাই।'

ফাইনালে নিজের প্রথম তিন ওভার দুর্দান্তই করেছিলেন। মাত্র ১৩ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই এসেছিলেন ইনিংসের ১৯তম ওভার করতে। জয়ের জন্য ভারতের তখন ১২ বলে দরকার ৩৪ রান। রুবেলের সেই ওভার থেকে দিনেশ কার্তিক তুলে নিলেন ২২ রান। জয়টা চলে এল ভারতের একেবারে নাগালের মধ্যেই। লি অবশ্য রুবেলকে পছন্দ করছেন গোটা টুর্নামেন্টে তাঁর বোলিং দেখেই, ‘রুবেলই খুব সম্ভবত এই প্রতিযোগিতার একমাত্র বোলার, যে বলের সিম সোজা রেখে বোলিং করেছে। স্বল্প রানআপে দারুণ দারুণ সব ইয়র্কার দিয়েছে।’

ট্যাগ: banglanewspaper ব্রেট লি রুবেল