banglanewspaper

ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীর তাকিয়া রোডের হলুদ মরিচ গুড়া কারখানায় মেশানো হচ্ছে নানা রকমের ভেজাল দ্রব্য। এসব কারখানার হলুদ মরিচের গুড়া বাতাসে ছড়িয়ে পড়ায় মানুষ রোগাক্রান্ত হচ্ছে। এলাকাবাসী আছে চরম ভোগান্তিতে। কারখানা সংলগ্ন স্থানে হাটা চলাফেরা করাও দুরূহ হয়ে পড়েছে।

বুধবার (২১ মার্চ) ফেনীর তাকিয়া রোডের এসব ক্রাসিং কারখানাগুলোতে অভিযান পরিচালনা করে ফেনী জেলা প্রশাসন। অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা। 

এ সময় দুটি কারখানায় ক্রাসিংরত অবস্থায় হলুদের সাথে আতপ চাল ও মরিচের সাথে কাউন ধান পাওয়া যায়। মিল দুটি হলো আবুল বশর ক্রাশিং মিল ও আব্দুল কাদের ক্রাশিং মিল। এসময় আবুল বশর ক্রাশিং মিল এর মালিক আবুল বশরকে ৭৫ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয়।  

এছাড়াও মরিচ হলুদের কণা বাতাসে ছড়িয়ে বায়ূ দূষণের অপরাধে কুদ্দুস ক্রাসিং এর আব্দুল কুদ্দুসকে ৩০ হাজার টাকা, তানজীল এন্টারপ্রাইজের মঞ্জুর কবির তানজীলকে ৩৫ হাজার টাকা ও আফসার ট্রেডার্স এর নুরুল আফসারকে ৩৫ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করেন আদালত। এছাড়াও ভোক্তা অধিকার বিরোধী কার্যকলাপের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয় শাহজাহান বাবুল ক্রাশিং মিল, জহিরউদ্দিন লিটন ক্রাশিং মিল, গোলাম হায়দার ক্রাশিং মিল। সবগুলো প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করার পর তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে। দীর্ঘদিনের এলাকাবাসীর অভিযোগ ক্রাশিং মিলের এই বায়ু দূষণ। দূষণ বন্ধ করার জন্য ডাস্ট কালেক্টর বসানোর জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয় মিল মালিকদের।

অভিযানে জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর সুজন বড়ুয়া, পৌরসভা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর কৃষ্ণময় বণিক ও জেলা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ: banglanewspaper ফেনী জরিমানা