banglanewspaper

মোস্তাফিজুর রহমান, বরগুনা: বরগুনার পাথরঘাটায় এক দম্পতিকে মারধরের অভিযোগের চার দিন পার হলেও মামলা নেয়নি পুলিশ।পাথরঘাটা পৌর ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক এম রাকিব খানসহ তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ ওঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৯ মার্চ সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পাথরঘাটা পৌর শহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পোনা মাছের মাটির পাত্র (চাড়ি) ভাঙ্গার অভিযোগে স্থানীয় ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক জাহাঙ্গীর হাওলাদারের বাড়ির সামনে এসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়। জাহাঙ্গীর হাওলাদার ও তার স্ত্রী মাহামুদা বেগমকে এ গালিগালাজ করেন পৌর ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক এম রাকিব খান, তার বড় ভাই মো. হাসান খান ও বাবা ফারুক খান। পরে তাদের দুজনকে মারধর করে।

আহত মাহমুদা জানান, আমরা চাড়ি ভাঙ্গার সঙ্গে জড়িত নয় বলে এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে তারা আরো উত্তেজিত হয়ে আমার স্বামী জাহাঙ্গীর হাওলাদারকে মারধর ও ধারালো রামদা দিয়ে ডান পায়ের গোড়ালিতে কোপ দেয়, এতে জাহাঙ্গীর আহত হন। এ সময় তার আমি ছুটে গেলে আমাকেও বেধরক মারধর করা হয়। পরে স্থানীয়রা আমাদের দু’জনকে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক লিংকন অধিকারী বলেন, মাহামুদা বেগমকে মূলত চাপা বেদম মারধর করা হয়েছে। তাছাড়া তার শরীরে কিছু দিন আগে একটি অপারেশন করা হয়েছিল। তাই তার অবস্থা গুরুতর।

আহত জাহাঙ্গীর অভিযোগ করে বলেন, আমি ১০ থেকে ১২ বার মামলা দেয়ার জন্য থানায় যাই। কিন্তু পুলিশ মামলা নেননি।

এদিকে গত ১৩ জানুয়ারি উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষের সময় কর্তব্য পালন কালে দৈনিক নয়াদিগন্তের পাথরঘাটা প্রতিনিধি এএসএম জসিমের উপর চড়াও হয়ে মোবাইল ও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয় অভিযুক্ত রাকিব খান। পরে নেতাদের প্রচেষ্টায় মোবাইল ও ক্যামেরা ফিরিয়ে দেন।

অভিযোগ প্রসঙ্গে পাথরঘাটা পৌর ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক এম রাকিব খানকে মুঠো ফোনে কল দিলে মুঠো ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা মো. খবির আহম্মেদ বলেন, অভিযুক্তরা পাথরঘাটা পৌর মেয়রের আত্মিয় হওয়ায় মেয়র স্থানীয় সংসদ সদস্যর সাথে আলাপ করে বিষয়টি মিমাংসা করবে বলে আশ্বাস দিলে মামলা নেয়া হয়নি। যদি মীমাংসা না হয় তবে মামলা গ্রহণ করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে পাথরঘাটা পৌর মেয়ার আনোয়ার হোসনে আকন বলেন, আমি ওসিকে মামলা নেয়ার জন্য বলেছি। সে কেন মামলা নেয়নি তা বলতে পারছি না।

ট্যাগ: Banglanewspaper পাথরঘাটা ছাত্রলীগ নেতা দম্পতি পুলিশ