banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিজিএমইএ’র ভবন ভাঙতে মুচলেকা গ্রহণের পাশাপাশি এক বছরের মধ্যে ওই ভবন ভেঙে ফেলার জন্য তাদেরকে সময় দিয়েছেন আদালত। এ নিয়ে বিজিএমইএ ভবন তৃতীয়বারের মতো সময় পেল।

আজ সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

‘ভবিষ্যতে ভবন ভাঙতে আর সময় চাইবে না’- বিজিএমইএ’র এমন মুচলেকায় আগামী বছরের ১২ এপ্রিল পর্যন্ত সময় দিয়েছেন আদালত। এর মধ্যে সৌন্দর্যমণ্ডিত হাতিরঝিল প্রকল্পে এই ‘ক্যান্সার’ ভাঙতেই হবে।

এর আগে বিজিএমইএর আইনজীবী এডভোকেট কামরুল হক সিদ্দিকী আপিল বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী মুচলেকা দাখিল করেন। আদালত ওই মুচলেকা গ্রহণ করে তাদেরকে ভবন ভাঙতে এক বছর সময় দেন।

গত ২৮ মার্চ দাখিল করা মুচলেকায় কিছু অস্পষ্টতা থাকায় তা সংশোধন (মোডিফাই) করে ফের সোমবারের মধ্যে দিতে বলেছিলেন আপিল বিভাগ।

আদালতে বিজিএমইএ’র পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী কামরুল হক সিদ্দিকী। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ মইনুল ইসলাম।

ট্যাগ: Banglanewspaper মুচলেকা বিজিএমইএ ভবন