banglanewspaper

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় ইউটিউবের প্রধান কার্যালয়ে একজন নারী হামলাকারীর গুলিতে কমপক্ষে তিনজন আহত হয়েছেন। হামলা চালানোর পর নিজের গুলিতে মারা যান ওই নারী। খবর সিএননের।

সংবাদ মাধ্যমগুলোতে বলা হয়, সন্দেহভাজন ওই নারীর নাম নাসিম আঘদাম। তিনি ইরানি বংশোদ্ভূত ক্যালিফোর্নিয়ার নাগরিক। 

অনেকে দাবি করেন, তিনি এর আগেও অভিযোগ জানাতে একাধিক বার ইউটিউব কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। তার আপলোড করা একটি ভিডিও বৈষম্যমূলক তথ্য পরিবেশন করায় তা ফিল্টারিং করেছিল ইউটিউব কর্তৃপক্ষ। ফলে এ নিয়ে বেশ ক্ষেপে ছিলেন এ নারী।

গোলাগুলির ঘটনার পর তার ইউটিউব, ফেসবুক এবং ইস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলেছে কর্তৃপক্ষ।

হামলায় গুলিবিদ্ধদের একজন ৩৬ বছর বয়সী যুবক। তাকে ওই নারীর প্রেমিক বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

তবে কী কারণে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে, তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।  

ইউটিউবের স্বত্বাধিকারী  প্রতিষ্ঠান গুগল জানিয়েছে, সান ব্রুনো কার্যালয়ে হঠাৎ করেই ওই নারী বন্দুক নিয়ে হামলা চালায়। গোলাগুলির শব্দ শুনে প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা দিগ্বিদিক পালাতে শুরু করে। এরপর পুলিশ সদর দপ্তরের চারদিকে অবস্থান নেয়।

ইউটিউব কার্যালয় ঘিরে বেশ কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স যেতে দেখা গেছে। ভবন থেকে মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। মানুষকে ওই এলাকা থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে পুলিশ। ভবন থেকে দ্রুত পালাতে গিয়েও অনেকে আহত হয়েছে বলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।  

ইউটিউব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তাদের এই প্রতিষ্ঠানের সদর দপ্তরে প্রায় এক হাজার ৭০০ কর্মী কাজ করেন।

ট্যাগ: banglanewspaper ইউটিউব হামলাকারী নিহত